মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ০৬:০৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
যুবক কে অপহরণ করে বিয়ে করলেন তরুণী |বাংলাদেশ দিগন্ত প্রধানমন্ত্রীর অনুদানের চেক হস্তান্তর | বাংলাদেশ দিগন্ত ইসলাম ত্যাগ করে দেখেন দুই দিন মন্ত্রী থাকতে পারেন কিনা | বাংলাদেশ দিগন্ত টেকনাফে বিএমএসএফ এর পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান |বাংলাদেশ দিগন্ত টেকনাফে আল-আরাফাহ ইসলামী ব্যাংক হ্নীলা বাজার আউটলেট শাখার উদ্বোধন |বাংলাদেশ দিগন্ত টেকনাফে মাদক আইসসহ গ্রেফতার-১ | বাংলাদেশ দিগন্ত হোয়াইক্যংয়ে টমটম দুর্ঘটনায় এক শিশু নিহত | বাংলাদেশ দিগন্ত টেকনাফে ৯ মামলার আসামি গ্রেফতার |বাংলাদেশ দিগন্ত উখিয়ায় যাত্রা শুরু হলো জাইতুন রেস্টুরেন্ট এন্ড ক্যাফে রোহিঙ্গাদের শীর্ষ নেতা মুহিববুল্লাহ সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত |বাংলাদেশ দিগন্ত

অতিরিক্ত টমটমগাড়ি চার্জের কারণে পুরো টেকনাফ উপজেলা লোডশেডিংয়ের কবলে |বাংলাদেশ দিগন্ত

এম এ হাসান,টেকনাফ:
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ১৪ মার্চ, ২০২১
  • ৩০৬ বার পঠিত

সীমান্ত উপজেলা টেকনাফ পৌরসভায় দিনদিন টমটম (ইজিবাইক)গাড়ীর শহরে পরিনত হয়েছে।এসমস্ত গাড়ী ব্যাটারী চালিত বিধায় ৭হতে ৮ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ প্রতিদিন গিলে খাচ্ছে। ফলে প্রতিদিন প্রতিনিয়ত টেকনাফ পৌরসভা ও উপজেলায় লোডশেডিং লেগেই আছে।

কোন নিয়ম নীতি ছাড়াই যেখানে সেখানে
টমটমের গাড়ীতে চার্জ দেওয়া হচ্ছে। এতে অনেক দূর্ঘটনা সংঘটিত হচ্ছে বলে এলাকার লোকজন জানান।দিনদিন টমটমের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। এসমস্ত গাড়ীর কোন লাইসেন্স পত্র নেই।নেই কোন ব্লুবুক, নেই কোন চালকের লাইসেন্স।

ফলে ৭/৮বৎসরের বাচ্চা হতে আরম্ভ করে ৫০/৬০ বৎসরের বৃদ্ধ পর্যন্ত এই গাড়ীগুলো চালাচ্ছে। এসমস্ত চালকদের নুন্যতম ও গাড়ী চালানোর কোন অভিজ্ঞতা নেই। এর কারনে প্রতিদিন অসংখ্য দূর্ঘটনা সংঘটিত হচ্ছে। এতে বেশির ভাগই কোমলমতি শিশু-কিশুর হতাহত হচ্ছে। এই গাড়ীগুলোর যেমন কোন প্রশাসনিক নিয়ন্ত্রণ না থাকায় যাদের যা ইচ্ছা ভাড়া আদায় করে যাচ্ছে।

ভাড়া আদায়ের কোন নির্দিষ্ট তালিকা নেই বলে স্থানীয় পৌরবাসী জানান।এসমস্ত টমটম চালকদের গাড়ী চালানোর অভিজ্ঞতা না থাকায় ট্রাফিক আইন সম্পর্কে তা মোটেও জানা নেই।টমটম গাড়ী প্রশাসনিক ভাবে নিয়ন্ত্রণে আনা না গেলে টেকনাফ পৌরসভায়, পৌরসভার জনসংখ্যার চেয়ে গাড়ীর সংখ্যা ২/৩গুণ হয়ে পড়বে।

এই টমটম গাড়ী গুলো পরিবেশের জন্য ভালো হলেও কিন্তু বিদ্যুৎ চালিত ইত্যাদি বিষয়ে এলাকার ব্যাপক ক্ষতি সাধন হচ্ছে বলে এলাকার সচেতন মহল জানান।এদিকে টেকনাফ পল্লী বিদ্যুৎ অফিস সূত্রে জানা যায়,টেকনাফ উপজেলায় জনসংখ্যা অনুপাতে বিদ্যুৎতের চাহিদা হচ্ছে ১০ মেগাওয়াট।কিন্তু টমটমের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় এর চাহিদা ১৮/২০ মেগাওয়াটে পরিনত হয়েছে। এর কারনে লোডশেডিং সমস্যা লেগেই আছে।

এছাড়া টমটম গাড়ীর চার্জ দেওয়ার জন্য নির্দিষ্ট মিটার হয়েছে। যে মিটার বসাতে ৬০/৭০ হাজার টাকা ব্যয় হয়।কিন্তু টেকনাফে টমটম গাড়ী চার্জ দেওয়ার জন্য বিদ্যুৎ অফিসের অনুমোদিত কোন মিটার নেই বলে জানা গেছে।টমটম চালক ও মালিকগন অবৈধ পন্থায় যেখানে সেখানে গাড়ীর চার্জ দিচ্ছে বলে স্থানীয় লোকজন জানায়।এবিষয়ে টেকনাফ উপজেলা পল্লী বিদ্যুৎ জোনাল অফিসের ডিজিএম আবুল বাশারের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, এবিষয়ে শীগ্রই ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By Bangla Webs
error: Content is protected !!