রবিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ০৬:২৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
উখিয়ার মুবিন স্থানীয় পত্রিকা থেকে পেলেন পদন্নোতি এবং বেস্ট কো- অপারেশন সম্মাননা সাবরাং উচ্চ বিদ্যালয়ের উদ্যোগে নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান ও মেম্বারদের বিজয় সংবর্ধনা প্রথম শ্রেণির শিক্ষার্থীর বয়স ১০৭ বছর! |বাংলাদেশ দিগন্ত প্রকাশিত সংবাদের একাংশের প্রতিবাদ মরজিনা মেম্বার অসুস্থ হয়ে চিকিৎসার জন্য ঢাকায়,সকলের দোয়া কামনা করেছেন টেকনাফে কমিউনিটি পুলিশিং ডে পালিত | বাংলাদেশ দিগন্ত যুবক কে অপহরণ করে বিয়ে করলেন তরুণী |বাংলাদেশ দিগন্ত প্রধানমন্ত্রীর অনুদানের চেক হস্তান্তর | বাংলাদেশ দিগন্ত ইসলাম ত্যাগ করে দেখেন দুই দিন মন্ত্রী থাকতে পারেন কিনা | বাংলাদেশ দিগন্ত টেকনাফে বিএমএসএফ এর পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান |বাংলাদেশ দিগন্ত

অসহায় কৃষকের পাকা ধান কেটে দিলেন টেকনাফ ছাত্রলীগ সভাপতি মুন্না |বাংলাদেশ দিগন্ত

শেখ রাসেল, টেকনাফ:
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ২৮ এপ্রিল, ২০২১
  • ২০৪ বার পঠিত

টেকনাফ উপজেলা অসুস্থ রহমতুল্লাহ নামের এক কৃষকের পাকা ধান কেটে ঘরে তুলে দিয়ে মুখের হাসি পুটালেন টেকনাফ উপজেলা ছাত্রলীগের নবনির্বাচিত সভাপতি সাইফুল ইসলাম মুন্না।

আজ ২৮ এপ্রিল (বুধবার) সকাল ১০ টা থেকে টেকনাফ উপজেলা বাহার ছাড়া শিলখালী গ্রামের রহমতুল্লাহ নামে কৃষকদের এক একর জমির পাকা ধান কেটে দেয়। টেকনাফ উপজেলা ছাত্রলীগের নবনির্বাচিত সভাপতি সাইফুল ইসলাম মুন্না উদ্যোগে এ কার্যক্রমে অংশগ্রহন করেন টেকনাফ উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক ও ইউনিয়নের অসংখ্য নেতা কর্মীরা।

কৃষক রহমতুল্লাহ বলেন, আমি শারীরিকভাবে অসুস্থ। এদিকে লকডাউনের কারণে অর্থনৈতিকভাবে ভেঙ্গে পড়েছি। আমার এক একর পাকা ধান নিয়ে চিন্তিত ছিলাম। বিষয়টি ছাত্রলীগ নেতা সাইফুল ইসলাম মুন্না খবর পেয়ে সে আজ আমার খেতের ধান কেটে দিয়েছে। এ অসহায় সময়ে তারা আমার পাশে এসে দাঁড়িয়েছে এতে তাদের প্রতি আমি কৃতজ্ঞ।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানান,ছোট কাল থেকে দেখে আসছি ছেলেটা মানবিক, আমরা সবসময় দেখি যে,যেকোনো অসহায় মানুষের পাশে সে সব সময় দাঁড়ানোর চেষ্টা করে এবং সাদামাটা নিরহংকার একজন ছেলে মুন্না।

এই সময় টেকনাফ উপজেলা ছাত্রলীগের নবনির্বাচিত সভাপতি সাইফুল ইসলাম মুন্না জানান, কৃষক রহমতুল্লাহ টাকার অভাবে শ্রমিক না নিতে পেরে চিন্তায় পড়েন তিনি অসুস্থ বলে আমি খবর পেয়েছি। বিষয়টি জানার পর আমি ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে ঐ কৃষকের এক একর জমির পাকা ধান কেটে ঘরে তুলি।

এবং কৃষক রহমতুল্লাহ ধান কাটার পরে টেকনাফে উপজেলার যে কোনো কৃষক এবং অসহায় পরিবারের সমস্যা হলে আমাকে কল দেবেন অথবা কোনো ছাত্রলীগের কোনো সদস্য কে বলিলে আমাকে বলবে আমি ইনশাআল্লাহ কৃষকের পাশে আজীবন থাকবো বলে জানান।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By Bangla Webs
error: Content is protected !!