বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:৪৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন করুন: জেলা ইসলামী আন্দোলন টেকনাফে আনারস মার্কার সমর্থনে জনসভায় বিপুল ভোটে বিজয়ের আগাম ঘোষণা দিলেন স্বতন্ত্রপ্রার্থী নুর হোসেন! টেকনাফে নৌকা বিদ্রোহীদের জন্য কঠিন শাস্তি অপেক্ষা করছে; সাবরাং পথসভায় মেয়র মুজিব বৈদ্যুতিক পাখায় ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করতে সকলের দোয়া ও সমর্থন চেয়েছেন হ্নীলা ৫নং ওয়ার্ডের মেম্বার প্রার্থী আলী আহমদ প্রাইভেট পড়তে গিয়ে ধর্ষণে অন্তঃসত্ত্বা স্কুলছাত্রী |বাংলাদেশ দিগন্ত টেকনাফে ইউপি নির্বাচনে প্রার্থীরা বেশীর ভাগই মাদকসহ বিভিন্ন অপরাধে সম্পৃক্ত অবিবাহিত পরিচয়ে চতুর্থ বিয়ের সময় হাতেনাতে ধরা! চকরিয়ায় অস্ত্রসহ গ্রেপ্তার-৩ |বাংলাদেশ দিগন্ত চাঁদাবাজির অভিযোগে কথিত ৩ সাংবাদিক পুলিশ হেফাজতে |বাংলাদেশ দিগন্ত টেকনাফে নির্বাচনি মাঠে আত্মস্বীকৃত ইয়াবা কারবারিদের অতিরিক্ত দৌঁড়ঝাপ |বাংলাদেশ দিগন্ত

কওমী মাদরাসা বন্ধের নির্দেশনা প্রত্যাহারের দাবি জানান,মাও জুনায়েদ আল হাবীব |বাংলাদেশ দিগন্ত

বার্তা পরিবেশক:
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ৭ এপ্রিল, ২০২১
  • ২০০ বার পঠিত

হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব, ঢাকা মহানগর সভাপতি, এবং জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের সহ সভাপতি, জামিয়া কাসিমিয়া আশরাফুল উলুম মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা প্রিন্সিপাল, খতীবে বাঙ্গাল আল্লামা জুনায়েদ আল হাবীব আজ এক বিবৃতিতে বলেন, গত আগস্ট মাস থেকে অত্যন্ত সুশৃংখল ভাবে বাংলাদেশের কওমী মাদরাসা গুলো তাদের শিক্ষা কার্যক্রম চালিয়ে আসছে। এদিকে কওমী মাদরাসা গুলো সম্পুর্ন সুন্নত তরিকায় পাক-পবিত্র ও পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে গত আগস্ট মাস থেকে শিক্ষা কার্যক্রম চালিয়ে আসছে।

 

আল্লামা জুনায়েদ আল হাবীব বলেন, আজকে অত্যন্ত দুঃখের সাথে লক্ষ করছি বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক কওমী মাদরাসা গুলো বন্ধের নির্দেশনা জারি করা হয়েছে। আমি এর তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। এবং অতি দ্রুত এই নির্দেশনা প্রত্যাহারের দাবি জানাচ্ছি।

খতিবে বাঙ্গাল আরো বলেন, সামনে রমজান মাস আগত। কুরআন নাজিলের মাস। এই মাসে সাধারনত মাদ্রাসাগুলোর কিতাব বিভাগ বন্ধ থাকে এবং স্বল্প পরিসরে শুধু মাত্র সারা দেশের মক্তব এবং হেফজখানা গুলো চালু থাকে। এবং সেখানে শুধু মাত্র কুরআন শিক্ষা ও কুরআন তেলাওয়াতেই জারি থাকে। কুরআন নাজিলের মাসকে সামনে রেখে মাদরাসা গুলো বন্ধের ঘোষণা দিয়ে কুরআন শিক্ষা ও কুরআন তেলাওয়াত বন্ধ করে দেওয়ার গভীর চক্রান্ত শুরু হয়েছে।

 

তিনি আরো বলেন, বিগত দিনে আমরা লক্ষ করেছি কওমী মাদরাসা গুলো খুলে দেওয়ার পর থেকে আজ পর্যন্ত কোথাও কোনো মাদরাসায় কেউ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে, এমন সংবাদ কোথাও পাওয়া যায়নি। কারণ কওমী মাদরাসা গুলোতে কুরআন হাদীসের পাঠ দানের মাধ্যমে সমাজের মধ্যে আল্লাহর রহমত বয়ে আনে। আর রহমত যেখানে থাকবে সেখানে গজব আসতে পারে না। সুতরাং রহমতের এই মাসে আল্লাহর রহমত কামনার দরজা গুলো খুলে দিন তাহলেই করোনা ভাইরাসের মতো গজব থেকে রক্ষা পাওয়া যাবে।

 

তিনি আরো বলেন, বর্তমান এই সময়ে বাংলাদেশের সর্বস্তরের জনগণ লকডাউন প্রত্যাখ্যান করেছে। কৃষক শ্রমিক দোকানদার ও ব্যবসায়ী সহ জনগণ লকডাউনের বিরুদ্ধে রাজপথে আন্দোলনে নেমেছে। যার ফলশ্রুতিতে আজ সকাল থেকে রাজধানীর সকল পরিবহন চলাচলের ঘোষণা দিয়েছেন। এমতাবস্থায় মাদরাসা বন্ধের ঘোষণা মাদরাসা শিক্ষার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র ও চক্রান্ত ছাড়া আর কিছুই না।

হুজুরের ফেসবুক ওয়াল থেকে নেয়া।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By Bangla Webs
error: Content is protected !!