মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২২, ১০:৩৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
আত্মসমর্পণকারী ইউনুছের বাড়ি থেকে ইয়াবা ও ফেন্সিডিল উদ্ধার!_ নতুন বছরের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ফয়েজুল ইসলাম মেম্বার রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী নিপাত যাক,বাঙালি জাতি মুক্তি পাক এই স্লোগান নিয়ে বিশাল মানববন্ধন প্রেম করে তুমি প্রতিশোধ নিতে চেয়েছো?প্রয়াত যুবতীর চিঠি! ওব্যাট-প্রান্তিক লার্নিং সেন্টারের শিক্ষার্থীরা পেলো শীতবস্ত্র |বাংলাদেশ দিগন্ত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে পেকুয়ায় সাংবাদিকদের মানবন্ধন |বাংলাদেশ দিগন্ত রোহিঙ্গাদের দ্রুত প্রত্যাবাসনের দাবিতে টেকনাফে ছাত্রলীগের মানববন্ধন টেকনাফ পৌরসভা নির্বাচনে মোহাম্মদ ইসমাইলের মেয়র প্রার্থীতা বৈধ করেছেন হাইকোর্ট মোটরসাইকেল প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী খোকনের নির্বাচনি অফিস উদ্বোধন হোয়াইক্যংয়ে নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান-মেম্বারদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠান সম্পন্ন |বাংলাদেশ দিগন্ত

জয় পরিমণিদের জয়! বাংলাদেশ দিগন্ত

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ১ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ১৪৪ বার পঠিত

বাংলাদেশ কিন্তু ইসলামী শরীয়া আইনে পরিচালিত হয়না।তাই এদেশের সংবিধান যেমন প্রতিটি মানুষের ধর্মিয় স্বাধীনতা কে স্বীকার করে তেমনি মদের লাইসেন্স ও অনুমোদন দেয়।
আপনাকেই সিদ্ধান্ত নিতে হবে মসজিদে গিয়ে ইবাদত করবেন নাকি বারে গিয়ে মদ গিলবেন।
ইচ্ছার স্বাধীনতা শুধুমাত্র মানব আর জ্বীনকেই দেয়া হয়েছে।

মানব আর জ্বীন জাতিকে যদিও মহান শ্রষ্টা ইচ্ছার স্বাধীনতা দিয়েছেন কিন্তু তাদের কে সৃষ্টির উদ্দেশ্য ধ্যার্থহীন ভাবে বলে দিয়েছেন-“আমি জ্বীন আর মানব কে সৃষ্টি করিয়াছি আমার ইবাদত করার জন্য”।বর্তমানে অনেকে মুসলিম ঘরে জম্ম হয়ে মুসলিম সমাজে বেড়ে উঠার পরও আধুনিক শিক্ষায় শিক্ষিত অনেক ব্যক্তিবর্গ অনান্য ধর্মে ডাইভার্ট হয়ে যাচ্ছেন!

বর্তমানে আধুনিকতার নামে উলঙ্গপনাকে নিত্য নতুন ভাবেই প্রচারের আকর্ষনীয় ভংগিমায় অর্ধউলংগ পরিমনিদের কে নিঃস্বার্থ ভাবে মজা নিবারণের জন্য প্রচার করে নিজেদের অজান্তেই কিন্ত হাজারো সোনামনিদের উৎসাহী করে তুলিতেছে!

সময়ের পরিক্রমায় গত কিছুকাল আগে ও তসলিমা নাসরিন ধর্ম কে অবমাননা করার দায়ভার মাথায় নিয়ে দেশান্তর হতে বাধ্য হয়েছিলো! কিন্তু আজ যেন ইচ্ছার স্বাধিনতার সাথে মতপ্রকাশের অধিকার প্রতিষ্ঠা করার নামে আধুনিক চিন্তা-চেতনা ও পরিমনিদের অর্ধনগ্নতা হাজারো ধর্মদ্রুোহী- লক্ষ তাসলিমাদের নগ্ন সংস্কৃতির আগ্রসনের অভয়ারণ্য পরিণত হয়েছে। তাই বলা চলে আজতো পরিমনিদের জন্য বড্ডো সূদুর প্রসারি বিলাসী স্বপ্নের কাঙ্খিত সফলতা!

যে সফলতার জন্য অনেকদিন অপেক্ষা করতে হয়েছে হিন্দু-খৃষ্টান ও ইহুদী বলয় কে!যে সফল প্রজেক্টের নাম ছিলো -চলে বলে কৌশলে-যেভাবেই হোক মুসলিম নারিদের পর্দাহীন করো!

খসাতে হবেই নারীদের পর্দা!ধীরে ধীরে করে দাও লজ্জাহীন!এমন ভাবেই মেলামেশাতে অব্যস্ত করে দাও যেন অর্ধনগ্ন হতে হতে এমনিতেই নগ্ন হয়ে যায়!আর যদি প্রজেক্ট সফল হয়ে যায়-কখনও মুসলিম মহিলাদের গর্ভে জম্ম নিবেনা হযরত শাহজালাল,হযরত শাহপরান,তীতু মির,হাজী শরিয়ত উল্লাহদের মতো যুগের কান্ডারিরা। আজকের মুসলিম বাংলাদেশের ইতিহাস পরিমনিদেরই সফলতার ইতিহাস। লজ্জাবতী গাছের ঠিকই আগের মতো আছে লজ্জা !শুধুমাত্র মুসলিম নারিদের লজ্জা গ্রামীন ব্যাংকের একাউন্টে বন্ধক!!

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By Bangla Webs
error: Content is protected !!