শনিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০২২, ০৯:০১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
রামুতে সূর্যের হাসি যুব সংঘ ও প্রবাসী ফোরামের উদ্যোগে এসএসসিতে জিপিএ-৫ প্রাপ্তদের সংবর্ধনা মুক্তি” কক্সবাজার কর্তৃক টেকনাফে আন্তর্জাতিক ও জাতীয় প্রতিবন্ধী দিবস পালিত টেকনাফের নয়াবাজারে ছুরিকাঘাতে শাহ আলম গুরুতর আহত! শারীরিক নির্যাতন ও মিথ্যা মামলায় হয়রানির প্রতিবাদে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন ভাটারা থানা ছাত্রলীগের সভাপতি পলাশ, সাধারণ সম্পাদক উল্লাস নাফ মেরিট মাল্টিমিডিয়া স্কুলে ক্লাস পার্টি রোহিঙ্গা সেলিম হত্যা মামলায় হ্নীলার বাবুল মেম্বার গ্রেপ্তার টেকনাফে‘নগদকর্মী’কে হত্যার অভিযোগে ৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা টেকনাফে এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার টেকনাফ হ্নীলার মহিলা মাদ্রাসার বিরুদ্ধে মিথ্যা অপপ্রচারের প্রতিবাদ

পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের পক্ষ থেকে সার্বিক প্রস্তুতি সম্পন্ন বাংলাদেশকে ১০ টি ভারতীয় লোকোমোটিভ প্রদানে রাজস্ব আয় বৃদ্ধি হবে

সবুল মোল্লা,পাবনা প্রতিনিধি:
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ২৫ জুলাই, ২০২০
  • ৫১৬ বার পঠিত

বাংলাদেশ রেলওয়ের আপদকালিন চাহিদা পূরণ এবং রাজস্ব বৃদ্ধি কল্পে ভারতীয় মালবাহী ওয়াগন পরিবহণের কাজে লাগানোর জন্য আগামি ২৭ জুলাই দর্শনা স্টেশনে ১০ টি ভারতীয় লোকোমোটিভ গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন,পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের প্রধান যান্ত্রিক প্রকৌশলী কুদরত-ই-খোদা। শনিবার সকালে দর্শনা স্টেশনে অনুষ্ঠিতব্য ভারতীয় লোকোমোটিভ গ্রহণ অনুষ্ঠানের তদারকির লক্ষ্যে যাত্রা করা পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের উচ্চ পর্যায়ের অগ্রগামী দলের প্রধান হিসেবে তিনি ঈশ্বরদী স্টেশনে যাত্রা বিরতিকালে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন। তিনি আরও বলেন,বাংলাদেশে ব্রডগেজ লোকোমোটিভ সংকট থাকায় মালবাহী ট্রেন চালানো সম্ভব হচ্ছিলো না। এ কারণে সম্প্রতি এ ব্রডগেজ লোকোমোটিভের সংকট ও সমস্যার বিষয় নিয়ে দু’দেশের মধ্যে সন্তোষজনক আলোচনার হয়। এক পর্যায়ে ভারতীয় সরকার বাংলাদেশকে সম্পূর্ণ অনুদান হিসেবে ১০ টি ব্রডগেজ লোকোমোটিভ প্রদানের সিদ্ধান্ত নেয়। যে লোকোমোটিভ গুলোর প্রত্যেকটি ৩৩’শ হর্স পাওয়ার সম্পন্ন হবে। ওই লোকোমোটিভ গুলো দিয়ে মালবাহী ভারতীয় রেক পরিবহণ করা সহজ হবে। এত বাংলাদেশ রেলওয়ের রাজস্ব আয় অনেক বৃদ্ধি পাবে। ঠিকমত মালবাহী রেক পরিবহণ করতে পারলে শুধু রাজস্ব আয়ই বৃদ্ধি পাবেনা,এর সু-ফল সাধারণ মানুষের দোরগোড়ায়ও পৌঁছে যাবে। অন্যদের মধ্যে পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের প্রধান পরিবহণ কর্মকর্তা শহিদুল ইসলাম ও পাকশীর ডিআরএম আসাদুল হক বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দিক উল্লেখ পূর্বব বক্তব্য দেন। এসময় পাকশী রেলওয়ে বিভাগীয় বাণিজ্যিক কর্মকর্তা ফুয়াদ হাসান আনন্দ, পাকশী রেলওয়ে বিভাগীয় পরিবহণ কর্মকর্তা নাসির উদ্দিন,ডিএমই ক্যারেজ মমতাজুল ইসলাম ,ডিএসটিই টেলিকম সৌমিক শাওন কবীর, ডিএসটিই সংকেত রুবাইয়াত শরীফসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন। অগ্রগামী দলের সদস্যরা আরও বলেন, আগামি ২৭ জুলাই দর্শনা স্টেশনে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ভারতীয় রেলপথ মন্ত্রীর নিকট থেকে বাংলাদেশের রেলপথ মন্ত্রী ১০ টি ভারতীয় লোকোমোটিভ রিসিভ করবেন বলে সেখানে সার্বিক প্রস্তুতি সম্পন্নের পর জাকজমক পূর্ণ পরিবেশ সৃষ্টি করা হয়েছে। অগ্রগামী দলের সদস্যরা সেখানে শনিবার প্রথমিক পর্যায়ের তদারকি করবেন। আগামিকাল রবিবার সকালে পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের মহাব্যবস্থাপক মিহির কান্তি গুহ অনুষ্ঠানস্থলে উপস্থিত হয়ে সার্বিক প্রস্তুতি তদারকি পর্যবেক্ষণ শেষে ২৭ জুলাই ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে লোকোমোটিভ হস্তান্তর অনুষ্ঠান শেষে রাজশাহীতে ফিরে যাবেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By Bangla Webs
error: Content is protected !!