বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:০১ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন করুন: জেলা ইসলামী আন্দোলন টেকনাফে আনারস মার্কার সমর্থনে জনসভায় বিপুল ভোটে বিজয়ের আগাম ঘোষণা দিলেন স্বতন্ত্রপ্রার্থী নুর হোসেন! টেকনাফে নৌকা বিদ্রোহীদের জন্য কঠিন শাস্তি অপেক্ষা করছে; সাবরাং পথসভায় মেয়র মুজিব বৈদ্যুতিক পাখায় ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করতে সকলের দোয়া ও সমর্থন চেয়েছেন হ্নীলা ৫নং ওয়ার্ডের মেম্বার প্রার্থী আলী আহমদ প্রাইভেট পড়তে গিয়ে ধর্ষণে অন্তঃসত্ত্বা স্কুলছাত্রী |বাংলাদেশ দিগন্ত টেকনাফে ইউপি নির্বাচনে প্রার্থীরা বেশীর ভাগই মাদকসহ বিভিন্ন অপরাধে সম্পৃক্ত অবিবাহিত পরিচয়ে চতুর্থ বিয়ের সময় হাতেনাতে ধরা! চকরিয়ায় অস্ত্রসহ গ্রেপ্তার-৩ |বাংলাদেশ দিগন্ত চাঁদাবাজির অভিযোগে কথিত ৩ সাংবাদিক পুলিশ হেফাজতে |বাংলাদেশ দিগন্ত টেকনাফে নির্বাচনি মাঠে আত্মস্বীকৃত ইয়াবা কারবারিদের অতিরিক্ত দৌঁড়ঝাপ |বাংলাদেশ দিগন্ত

পিতার ধর্ষণে মেয়ে ৫মাসের আন্তঃসত্ত্বা |বাংলাদেশ দিগন্ত

বিডি দিগন্ত ডেস্ক:
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ১৫৭ বার পঠিত

কক্সবাজার শহরের কলাতলী চন্দ্রিমা এলাকায় খোদ পিতাই নিজের মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এতে ৫ মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে মেয়ে। এ ঘটনায় পিতা কামাল হোসেন (৩৫) এর বিরুদ্ধে ৪ সেপ্টেম্বর কক্সবাজার সদর মডেল থানায় মামলা করেছেন ভিকটিমের মা। যার মামলা নং-জি আর ৫৩৩/২১।
কক্সবাজার সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শেখ মুনীর-উল-গীয়াস মামলার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
থানার এসআই নাজমুন নাহার খানম মামলাটি তদন্ত করছেন।
এ মামলার একমাত্র আসামি কামাল হোসেনকে শনিবার (৪ সেপ্টেম্বর) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সে কক্সবাজার সদরের চৌফলদন্ডির বাসিন্দা। বর্তমানে পূর্ব কলাতলীর চন্দ্রিমা মাঠ এলাকায় বসবাস করে। পেশায় সে সিএনজি চালক।
অন্যদিকে শনিবার ১৬৪ ধারা মতে মামলার বাদি ও ভিকটিমের জবানবন্দী গ্রহণ করেছেন কক্সবাজার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতের বিচারক হেলাল উদ্দিন।
জবানবন্দী শেষে ভিকটিমকে মায়ের জিম্মায় দেন বিচারক।
মামলার বাদি ভিকটিম কিশোরীর মা জানান, গত ১০ এপ্রিল দিবাগত রাত সাড়ে ১১টার দিকে ১৩ বছর বয়সী তার প্রথম মেয়েকে ধর্ষণ করে পিতা (বাদির স্বামী) কামাল হোসেন। পরে আরো বেশ কয়েকবার একই ঘটনা ঘটায়। ঘটনা প্রকাশ না করতে মেয়েকে ভয়ভীতি, হুমকিও প্রদান করে।
ইতোমধ্যে ৫ মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে মেয়ে। ঘটনা জানাজানি হলে থানায় মামলা করেন কিশোরীর মা। ভিকটিম মেয়ে স্থানীয় একটি স্কুলে ৫ম শ্রেণির ছাত্রী।
বাদি পক্ষের প্রধান আইনজীবী আবদুল হালিম জানান, নিজের মেয়েকে ধর্ষণের মতো লজ্জাজনক ও ঘৃণিত কাজ করলো জন্মদাতা পিতা কামাল হোসেন। এ ঘটনায় আসামি পিতাকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। ঘটনার বিষয়ে বিজ্ঞ আদালতকে বিস্তারিত জবানবন্দি দিয়েছে ভিকটিম ও বাদি।
বিচারক হেলাল উদ্দিন ২২ ধারা মতে তাদের জবানবন্দি রেকর্ড করেন।

সূত্র:সিবিএন

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By Bangla Webs
error: Content is protected !!