শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২, ০৭:৪১ অপরাহ্ন

বন্যার পানিতে ঢুবে আছে সেই ত্যাগী আওমীলীগের নেতা নুর মোহাম্মদ মেম্বারের বাড়ি

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৩ আগস্ট, ২০২১
  • ২৫৫ বার পঠিত

বন্যার পানিতে ঢুবে আছে সেই কট্টর আওয়ামী.. ত্যাগী নেতা সাবেক নুর মোহাম্মদ মেম্বারের বাড়ি।

মোঃ ইয়াছিন আরফাত হ্নীলা টেকনাফঃ

আজ সবাই তাদের কথা ভুলে গেছে।
এদেরও ছিলো শেষ আশ্রয় কুড়ে ঘরটি।

কিন্তু ভাগ্যের নির্মম পরিহাস, রাক্ষসী বন্যা কেড়ে নিল সেই মাথা রাখার শেষ আশ্রয়টি।
হ্যাঁ, আমি টেকনাফ উপজেলার হ্নীলা ইউপির রংগীখালী লামার পাড়ার সাবেক নুর মোহাম্মদ মেম্বারের বাড়ির কথা বলছি। যিনি এই এলাকার জন্য সর্বোচ্ছ করে গেছেন। আজ তার পরিবারে হতাশার ঢল দেখার কেউ নেই। একই পরিবারে ১-১০জন সদস্য নিয়ে এমনিতেই টানাহেঁচড়ার মধ্যে যাচ্ছে দিন। তার উপর আবার বন্যার পানিতে ঢুবে গেলো বাবার রেখে যাওয়া শেষ সৃতি খানা। রংগীখালী লামার পাড়ার বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের মধ্যে সাবেক নুর মোহাম্মদ মেম্বারের বাড়িটাও আছে। এমনিতেই ১০জনের সদস্যের একটি পরিবার নিয়ে টানাহেঁচড়ার মধ্যে দিনযাপন করছে তারা। তার উপর নেই কোন ইনকামের মাধ্যম। নুরুল আবছার লিটন বলেন আমরা তিন ভাই, অনেক জায়গায় একটা চাকরির জন্য গিয়েছি অনেক জায়গায় নক করার পরও মিলে না একটা চাকরি। অনেকে অনেক প্রকার আশা দিলেও দিন শেষে আমরা বেকার। তিনি আরো বলেন, আমার বাবা ছিলেন একজন ত্যাগী কট্টর আওয়ামী.. আমার বাবা এই এলাকার গরীব দুঃখি মানুষের জন্য নিজের সব কিছু বিলীন করে দিয়েছেন। আমাদের জন্য তিনি কিছুই রেখে যাননি শুধু বাবার সৃতি হিসেবে ছিলো আমাদের শেষ আশ্রয় কূড়ে ঘরটি। আজ সেটিও বন্যার পানিতে ঢুবে ভেঙে গেছে। যে মানুষটা নিজের সন্তানদের ভবিষ্যতের কথা চিন্তা না করে কোন বাড়ি-ঘর জমি-জমা না করে সব ত্যাগ দিয়ে এলাকার জনগণের কাছে বিলীন করে দিয়েছে। আজ তার পরিবারে খবর কেউ নেয় না। লজ্জায় আমরা কাউকে আমাদের অভাবের কথা মুখ ফুটিয়ে বলতেও পারিনা। অনেকে অনেক প্রকার সরকারি ঘর-বাড়ি অনুদান পায়। কিন্তু আমরা কখনো এসব কিছু পায়না।এখন একেবারে নিরুপায় হয়ে আমাদের মাননীয় চেয়ারম্যান মহোদয়ের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলছি। সেই সাথে আপনার একান্ত সহযোগিতা কামনা করে বলছি প্লিজ আমাদের একটা কর্মসংস্থানের তথা চাকরির ব্যবস্থার পাশাপাশি একটি ঘর তৈরির কাজে সহায়তা করুন। আপনি এসে দেখেন আমাদের বাড়ির কি আবস্থা। আমরা কাউকে বলতে পারিনি কারণ আমাদের বাড়ি বরাবর কেউ আসেনি। পরিশেষে চেয়ারম্যান মহোদয়ের সুদৃষ্টি কামনা করছি।

অনুরোধেঃ
নুরুল আবছার লিটন।
Norulabshar Liton

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By Bangla Webs