বুধবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২২, ০৪:৫১ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
আত্মসমর্পণকারী ইউনুছের বাড়ি থেকে ইয়াবা ও ফেন্সিডিল উদ্ধার!_ নতুন বছরের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ফয়েজুল ইসলাম মেম্বার রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী নিপাত যাক,বাঙালি জাতি মুক্তি পাক এই স্লোগান নিয়ে বিশাল মানববন্ধন প্রেম করে তুমি প্রতিশোধ নিতে চেয়েছো?প্রয়াত যুবতীর চিঠি! ওব্যাট-প্রান্তিক লার্নিং সেন্টারের শিক্ষার্থীরা পেলো শীতবস্ত্র |বাংলাদেশ দিগন্ত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে পেকুয়ায় সাংবাদিকদের মানবন্ধন |বাংলাদেশ দিগন্ত রোহিঙ্গাদের দ্রুত প্রত্যাবাসনের দাবিতে টেকনাফে ছাত্রলীগের মানববন্ধন টেকনাফ পৌরসভা নির্বাচনে মোহাম্মদ ইসমাইলের মেয়র প্রার্থীতা বৈধ করেছেন হাইকোর্ট মোটরসাইকেল প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী খোকনের নির্বাচনি অফিস উদ্বোধন হোয়াইক্যংয়ে নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান-মেম্বারদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠান সম্পন্ন |বাংলাদেশ দিগন্ত

বিভিন্ন বন্দর দিয়ে বাংলাদেশে ঢুকছে ভারতীয় পেঁয়াজ |বাংলাদেশ দিগন্ত

বিডি দিগন্ত ডেস্ক:
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৩৩৬ বার পঠিত

চার দিন বন্ধ থাকার পরে অবশেষে আজ, শনিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) থেকে ভারতীয় পেঁয়াজ আবার দেশে আসতে শুরু করেছে। এদিকে, চাঁপাইনবাবগঞ্জের সোনা মসজিদ স্থলবন্দরে ট্রাক এসে পৌঁছেছে।
সোনার মসজিদ দিয়ে দুপুর বারোটা পর্যন্ত সাত ট্রাকে ১৯৯ টন পেঁয়াজ দেশে প্রবেশ করেছিল। ট্রাক চালকরা বলছেন যে ৩০০ টিরও বেশি ট্রাক এখনও ভারতীয় বন্দরে আটকে রয়েছে। পাইকাররা আশঙ্কা করছেন যে কয়েকদিন ধরে আটকে থাকায় উত্তাপে ট্রাকের পেঁয়াজ নষ্ট হয়ে যাবে।

শুল্ক আধিকারিকের মতে, রাত একটার পর থেকে পেঁয়াজ ট্রাকগুলি বন্দরে প্রবেশ করছে। এই ট্রাকগুলিতে প্রায় দেড়শ টন পেঁয়াজ রয়েছে বলে জানা যায়। মুক্তির কার্যক্রম ইতিমধ্যে শুরু হয়েছে।
এদিকে হিলি স্থলবন্দর থেকে ট্রাকগুলিও প্রবেশের অপেক্ষায় রয়েছে। এই বন্দরের মাধ্যমে পেঁয়াজ প্রবেশের সমস্ত কার্যক্রম শেষ হচ্ছে।

এর আগে, ভারতীয় বাণিজ্য মন্ত্রকের প্রেরিত একটি চিঠি পিঁয়াজ রপতানির বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। চিঠির বরাত দিয়ে পেঁয়াজ আমদানিকারক হারুনুর রশীদ বলেছেন যে পূর্বের উন্মুক্ত লোনের বিপরীতে কেবল গত রবিবার (১৩ সেপ্টেম্বর) পর্যন্ত যে পেঁয়াজ দেওয়া হয়েছিল, সেখানে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হবে। এখনও অবধি কত পেঁয়াজের টেন্ডার দেওয়া হয়েছে তা নিশ্চিতভাবে জানা না গেলেও তিনি বলেন, পেঁয়াজ বোঝাই কমপক্ষে ২০০ টি ট্রাক বাংলাদেশে প্রবেশের অপেক্ষায় রয়েছে। তারা আরও অভিযোগ করেছেন যে এই ট্রাকগুলির পেঁয়াজ গরমের কারণে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে।

এটি উল্লেখ করা যেতে পারে যে সোমবার (১৪ সেপ্টেম্বর) বিকেলে ভারত সরকার দেশীয় চাহিদার সাথে তাল মিলিয়ে পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করে দেওয়ার ঘোষণার পরপরই দেশের বাজার অচল হয়ে পড়ে। এক রাতে রাজধানীর গুদামগুলিতে এই নিত্যপণ্যের দাম প্রতি কেজি ৩০ টাকা বেড়ে যায়। দেশি পেঁয়াজ প্রতি কেজি ৮০ টাকায় বিক্রি হয়। আর ভারতীয় পেঁয়াজের দাম প্রতি কেজি ২০ টাকা পর্যন্ত বেড়ে যায়।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By Bangla Webs
error: Content is protected !!