রবিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২৩, ০৪:৪৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
টানটান উত্তেজনায় শেষ হল শেখ রাসেল গোল্ডকাপ;বিজয়ীদের পুরষ্কার তুলে দেন অতিথিগণ টেকনাফে মুক্তি কক্সবাজার কর্তৃক বাস্তবায়িত প্রকল্পের উপকারভোগীদের মধ্যে প্রশিক্ষণ পরবর্তী নগদ অর্থ সহায়তা বিতরণ টেকনাফে ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন অভাবনীয় সফলতায় মেম্বার এনামের প্রতিষ্ঠিত বালিকা মাদ্রাসা টেকনাফে “অক্সফাম” কর্তৃক ভাউচার প্রোগ্রামের মাধ্যমে বিভিন্ন সামগ্রী বিতরণ “মুক্তি” কক্সবাজার কর্তৃক উপকারভোগীদের মাঝে কৃষি উপকরণ ও নগদ টাকা বিতরণ “বাংলাদেশ সমতা ঐক্য পরিষদ’র কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী শাখার তৃতীয় মেয়াদে কমিটি গঠিত “মানবাধিকার দিবস” উপলক্ষে টেকনাফে কোস্ট ফাউন্ডেশনের সেমিনার রামুতে সূর্যের হাসি যুব সংঘ ও প্রবাসী ফোরামের উদ্যোগে এসএসসিতে জিপিএ-৫ প্রাপ্তদের সংবর্ধনা মুক্তি” কক্সবাজার কর্তৃক টেকনাফে আন্তর্জাতিক ও জাতীয় প্রতিবন্ধী দিবস পালিত

“মুক্তি” কক্সবাজার কর্তৃক উপকারভোগীদের মাঝে কৃষি উপকরণ ও নগদ টাকা বিতরণ

বার্তা পরিবেশক:
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ১২ ডিসেম্বর, ২০২২
  • ১০৫ বার পঠিত

টেকনাফে মুক্তি কক্সবাজার কর্তৃক বাস্তবায়িত প্রকল্পের উপকারভোগীদের মধ্যে কৃষি উপকরণ ও নগদ অর্থ সহায়তা বিতরণ করা হয়েছে।
আজ সোমবার টেকনাফ উপজেলার হ্নীলা ইউনিয়নে DFAT AHP II এর অর্থায়নে Oxfam এর কারিগরি সহযোগিতায় মুক্তি কক্সবাজার কর্তৃক বাস্তবায়িত “DFAT AHP Bangladesh Rohingya Response Phase III Inclusive for the Selected Host Community of Teknaf upazila, Cox’s Bazar District প্রকল্পের ২০০ জন বসতভিটায় শাক সবজি চাষ উপকারভোগীদের মধ্যে কৃষি উপকরণ ও নগদ অর্থ সহায়তা হিসেবে ১২৫০ টাকা করে নগদ অর্থ বিতরণ করা হয়েছে।
প্রকল্প সমন্বয়কারী মো: ফয়সাল বারী এর সঞ্চালনায় ২ নং হ্নীলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রাশেদ মাহমুদ আলীর সভাপতিত্বে হ্নীলা ইউনিয়ন পরিষদ প্রাঙ্গণে কৃষি উপকরণ ও নগদ অর্থ প্রদান করা হয়।

উক্তে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী অফিসার কামরুজ্জামান, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ এরফানুল হক চৌধুরী, অক্সফামের সিনিয়র ইএফএসভিএল অফিসার মোঃ শরীফুল ইসলাম।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে ইউএনও কামরুজ্জামান বলেন, আমি টেকনাফ এসে যতটুকু জেনেছি তাতে কক্সবাজার জেলায় প্রান্তিক জনগোষ্ঠির সার্বিক উন্নয়নে মুক্তি কক্সবাজার এর অবদান অনেক বেশি। তিনি বসত বাড়িতে শাক সবজি চাষ ও উপকারভোগীদের উদ্দেশ্যে বলেন , আপনার বাড়ির আশপাশের পতিত জমিতে শাক-সবজি চাষ করবেন, বাড়িতে হাঁস-মুরগী লালন পালন করবেন, এর ফলে আপনি নিজেও স্বাবলম্বী হবেন সেই সাথে দেশও স্বাবলম্বী হবে। মুক্তি ককস্বাজার আজকে যে কৃষি উপকরণ ও নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান করলেন এজন্য মুক্তি ককসবাজার সংস্থাকে ধন্যবাদ জানিয়ে আরও বলেন, আপনারা টাকাগুলো সঠিকভাবে কাজে লাগালে এ এলাকায় কৃষি ক্ষেত্রে অনেক অবদান রাখবে।আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন যে, আগামী সংকটময় সময় মোকাবেলা করার জন্য এক ইঞ্চি পরিমাণ জায়গা খালি রাখা যাবে না, তাই আপনারা বসতবাড়ির আশে পাশে সবজি চাষ করে প্রধানমন্ত্রীর কথার যথাযথ মূল্যায়ন করবেন। তিনি আরো বলেন যে, প্রান্তিক কৃষক হচ্ছে এ দেশের অর্থনীতির চালিকা শক্তি ও উন্নয়নের অংশীদার তাই আপনাদের সাথে কথা বলার সুযোগ পেয়ে নিজেকে ধন্য মনে করছি।

বিতরণ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে টেকনাফ উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ এরফানুল হক চৌধুরী বলেন ,  বসত বাড়িতে অধিক পরিমানে শাক সবজি উৎপাদন করে পরিবারের চাহিদা মিটিয়ে দেশের চাহিদা মিটাতে হবে। আপনারা জানেন যে, আমরা যদি বাহির থেকে পন্য আমদানি করি তাহলে সকল পন্যের দাম বেড়ে যায় তাই আমাদের সক্ষমতা অনুযায়ী বেশি বেশি শাক সবজি উৎপাদন করে আমদানি নির্ভরতা কমাতে হবে।

বিতরন অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে অক্সফামের সিনিয়র ইএফএসভিএল অফিসার মো: শরিফুল ইসলাম বলেন, শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য বেশি বেশি শাক সবজি খাওয়া খুবই প্রয়োজন। আপনারা প্রশিক্ষণে লব্ধ জ্ঞানের মাধ্যমে নতুন কৌশল অবলম্বন করে বেশি বেশি শাক সবজি উৎপাদনের মাধ্যমে পারিবারিক চাহিদা পূরণ করতে পারলেই আমাদের সমাজ থেকে পুষ্টির অভাব দুর করা সম্ভব হবে।
বিতরণ অনুষ্ঠানের সভাপতি ও ২ নং হ্নীলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রাশেদ মাহমুদ আলী বলেন , এই প্রকল্পের অধীনে হ্নীলা ইউনিয়নে ২৪০৫ জন উপকারভোগী নির্বাচন খুবই স্বচ্ছতার সাথে মুক্তি কক্সবাজার সম্পন্ন করেছেন। মুক্তি ককসবাজার এ প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন এবং ভবিষ্যতে এ ধরণের প্রকল্প আরো বাস্তবায়নের জন্য আহবান জানান। তিনি বলেন ,বসতভিটায় শাক সবজি চাষ ও উপকারভোগীদের উদ্দেশ্যে বলেন ,আজকে কৃষি উপকরণ ও নগদ অর্থ সহায়তা বিতরণ করা হচ্ছে, তার যথাযথ ব্যবহারের অনুরোধ জানান।
বিতরণ অনুষ্ঠানে এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন হ্নীলা ইউনিয়নের ইউপি সদস্যবৃন্দ, ইউপি সচিব, সাংবাদিক, স্থানীয় গন্যমাণ্য ব্যক্তিবর্গ, মুক্তি ককসবাজার এর হিসাব রক্ষন কর্মকর্তা মো: দিদারুল আলম, প্রকল্প কর্মকর্তা শামীম হাসান খান, কমিউনিটি ফ্যাসিলিটেটর মো. শাহজালাল, আকতার কামাল, দিলোয়ারা বেগম, মোহাম্মাদ আবদুল্লাহ প্রমূখ।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By Bangla Webs
error: Content is protected !!