রবিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ০৪:৫৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
উখিয়ার মুবিন স্থানীয় পত্রিকা থেকে পেলেন পদন্নোতি এবং বেস্ট কো- অপারেশন সম্মাননা সাবরাং উচ্চ বিদ্যালয়ের উদ্যোগে নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান ও মেম্বারদের বিজয় সংবর্ধনা প্রথম শ্রেণির শিক্ষার্থীর বয়স ১০৭ বছর! |বাংলাদেশ দিগন্ত প্রকাশিত সংবাদের একাংশের প্রতিবাদ মরজিনা মেম্বার অসুস্থ হয়ে চিকিৎসার জন্য ঢাকায়,সকলের দোয়া কামনা করেছেন টেকনাফে কমিউনিটি পুলিশিং ডে পালিত | বাংলাদেশ দিগন্ত যুবক কে অপহরণ করে বিয়ে করলেন তরুণী |বাংলাদেশ দিগন্ত প্রধানমন্ত্রীর অনুদানের চেক হস্তান্তর | বাংলাদেশ দিগন্ত ইসলাম ত্যাগ করে দেখেন দুই দিন মন্ত্রী থাকতে পারেন কিনা | বাংলাদেশ দিগন্ত টেকনাফে বিএমএসএফ এর পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান |বাংলাদেশ দিগন্ত

রামুতে হত্যা মামলার আসামী মোস্তাক আহাম্মদকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে দিলো জনতা |বাংলাদেশ দিগন্ত

রামু সংবাদদাতা:
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ৪ নভেম্বর, ২০২০
  • ৫৭৮ বার পঠিত

রামু উপজেলার কাউয়ারখোপ ইউনিয়নের উখিয়ারঘোনা টিলাপাড়ার চাঞ্চল্যকর জাহাঙ্গীর হত্যা মামলার আসামী মোস্তাক আহাম্মদকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে দিল জনতা।

জানা যায়, গত ১৮/১২/১৯ ইং ঘটে যাওয়া নির্মম হত্যা কান্ড মামলার ০২ নং আসামী মোস্তাক আহাম্মদ(প্রকাশ খুনি মোস্তাক) স্থানীয় জনতাকে আক্রমণ করার চেষ্ঠা করলে জনতা ক্ষিপ্ত হয়ে আত্নরক্ষার জন্য গণধোলাই দেয়,পরে মোস্তাক আহাম্মদকে উদ্বার করে হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যায় তারা। রামু থানা পুলিশ বিষয়টি অবগত হলে তৎক্ষণাৎ রামু থানার এসআই আমিরের নেতৃত্বে সঙ্গীয় ফোর্স হাসপাতালে গিয়ে তাকে গ্রেফতার করেন।

০৪ নভেম্বর ২০২০ ইংরেজি বুধবার রাত ৭:৩০ মিনিটের সময় উপজেলার উখিয়ারঘোনা এলাকার উত্তর পশ্চিম পাশে রাবার বাগানে মোস্তাক আহাম্মদ অতীতের ন্যায় লোকজনের উপর আক্রমণের চেষ্টা করলে স্থানীয় জনতা ক্ষিপ্ত হয়ে আটক করে গনধোলাই দিয়ে পুলিশের হাতে তুলে দেয় বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা প্রতিবেদককে নিশ্চিত করেন।

অপরদিকে এ বিষয়ে রামু থানার অফিসার ইনচার্জ কেএম আজমিরুজ্জামান প্রতিবেদকে জানান, আহত মোস্তাক একজন ক্রাইম সংক্রান্ত ব্যক্তি এবং সে জাহাঙ্গীর হত্যা মামলার একজন আসামী,
আজ (০৪/১১/২০ইং) সন্ধ্যার সময় এলাকার লোকজনকে মাইর ধর করতে চেষ্টা করলে জনতা আত্নরক্ষার জন্য জনতা গণধোলাই দিয়ে রামু চা বাগান হাসপাতালে নিয়ে যায়,বর্তমানে আমরা তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য সদর হাসপাতালে পুলিশ হেফাজতে প্রেরন করেছি,সে সুস্থ হলে তাকে সংশ্লিষ্ট আইনে জেলে প্রেরণ করা হবে।

উল্লেখ্য নিহত জাহাঙ্গীর প্রাণ হারায় তার আপন ভাই মকবুল আহমদ (৪৩), চাচাতো ভাই মোস্তাক আহমদ প্রকাশ (খুনী মোস্তাক) সহ প্রায় ০৮/১০ জনের একটি সন্ত্রাশী দলের হাতে । উক্ত ঘঠনার পর নিহত জাহাঙ্গীর এর স্ত্রী হাসিনা আক্তার (৩২) বাদী হয়ে রামু থানায় গত ২২/১২/১৯ ইংরেজি মামলা নং- ৩১/১৯ খ্রি: দায়ের করেন। উক্ত মামলায় উখিয়ারঘোনা এলাকার ১/ মৃত বাদশা আলমের ছেলে মকুল আহমদ (৪৩), ২/ মৃত নুর আহমদ মোস্তাক আহমদ (৩৯) প্রকাশ (খুনী মোস্তাক), ১নং আসামী মকবুল আহমদের স্ত্রী আয়েশা বেগম (৩৭), ৪।মো: হোছন, প্রকাশ কালু চৌকিদারের ছেলে মির কাশেম (৩০), ৫। মৃত নুর আহমদের ছেলে মমতাজ মিয়া ভুট্টু সহ আরো ৪/৫ জন অজ্ঞাতনামাকে আসামী করে হত্যা মামলা দায়ের করা হয়।
মোস্তাক আহাম্মদকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে দিলেও মামলার অপর আসামীগুলা এখনো অধরা বলে জানিয়েছে এলাকাবাসী। এদিকে রামু থানা কতৃপক্ষও ওয়ারেন্ট ভুক্ত আসামীদের গ্রেফতার করতে খুবই তৎপর রয়েছে বলে জানা যায়।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By Bangla Webs
error: Content is protected !!