বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ০৬:৪৭ পূর্বাহ্ন

রামুর দক্ষিণ মিঠাছড়িতে হাতি হত্যার ঘটনায় ভূমিদস্যু কালামসহ তিন জনের বিরুদ্ধে মামলা |বাংলাদেশ দিগন্ত

রামু প্রতিনিধি:
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১৯ নভেম্বর, ২০২০
  • ৫৪৪ বার পঠিত

রামু উপজেলার দক্ষিণ মিঠাছড়িতে বৈদ্যুতিক শক ও গুলি করে বন্যহাতি হত্যার ঘটনায় ভূুমিদস্যু আবুল কালাম আযাদসহ তিন জনের বিরুদ্ধে রামু থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। যার মামলা নং- ৪৭ তাং-১৭/১১/২০২০ ইং।

এজাহার সূত্রে জানা যায়, পানেরছড়া রেঞ্জ কর্মকর্তা তৌহিদুর রহমান বাদী হয়ে গত বুধবার (১৭ নভেম্বর) রামু থানায় অস্ত্র ও বন্যপ্রাণী আইনে মামলাটি দায়ের করা হয়। ঐ মামলায় তিন জনকে আসামী করা হয়েছে।

বন্যহাতি হত্যা মামলার আসামীরা-দক্ষিণ মিঠাছড়ি ইউনিয়নের বাটপাড়া এলাকার আব্দুল মোতালেবের ছেলে আবুল কালাম, খরইল্যাছড়ি সাইরারঘোনা এলাকার মৃত শায়ের মাহমুদের ছেলে নুরুল হক ও একই এলাকার মৃত ফরিদুল আলমের ছেলে সুলতান।

রবিবার (১৫ নভেমম্বর) ভোর সাড়ে ৪ টার দিকে রামু উপজেলাধীন পানেরছড়া রেঞ্জের নিয়ন্ত্রণাধীন দক্ষিণ মিঠাছড়ি মৌজার খুুরুরিয়ারছড়ার সাইরার ঘোনা নামক এলাকায় উপরোক্ত আসামী তিনজনসহ অজ্ঞাতনামা ৪/৫ মিলে বন্যহাতিকে হত্যা করার উদ্দেশ্যে অবৈধভাবে স্থাপিত বৈদ্যুতিক তারের ঘেরা/ ফাঁদ তৈরী করে বন্যহাতিকে হত্যা করে। উপরোক্ত ২ নং আসামী সুলতানের বাড়ি থেকে বৈদ্যুতিক সংযোগ নেওয়া হয়েছিলো। মামলার আসামী আবুল কালামের অবৈধ অস্ত্র দিয়ে হাতিটিকে গুলি করে যা ময়নাতদন্তে স্পট উল্লেখ রয়েছে। যে স্থানে হাতিটি কে হত্যা করেছে সে স্থানে উল্লেখিত আসামীদের ফসলী জমি ও অবৈধভাবে দখলকৃত সরকারী বনভূমিতে পানের বরজ ও অন্যান্য স্থাপনা রয়েছে। যে স্থানে হাতিটিকে হত্যা করা হয়েছে সেই স্থানটি হাতি চলাচলের নিরাপদ রাস্তা ছিল। প্রতিদিনে মতো চলাচলের পথে আসার সময় বন্য হাতিটিকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছে। আসামীরা হাতিটিকে হত্যার কারার পরে মৃত হাতির পাশে থাকা জমি থেকে ধান কাটিয়ে নিয়ে যায় এবং আসামীরা হত্যাকৃত হাতিটিকে বিভিন্ন গাছের ডালপাল ও পলিথিন মুড়িয়ে লুকানোর করেছিল।

বনবিভাগের পানেরছড়া রেঞ্জের রেঞ্জ কর্মকর্তা তৌহিদুর রহমান জানান- বন্য হাতি হত্যার ঘটনায় তিনজনকে আসামী করে রামু থানা মামলা করা হয়েছে।
তিনি আরো জানান, যেখানে মৃত হাতিটি পড়ে ছিলো সেটি জোত জমি। এর পাশেই ছিল বন। ঘটনাস্থলের প্রায় ১০০ মিটার দূরে বাড়িঘর রয়েছে। এসব বাড়িঘরে বিদ্যুৎ সংযোগ আছে। হাতিটিকে বৈদ্যুতিক শক ও গুলি করে করে হত্যা করা হয়েছে।

রামু থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কে এম আজমিরুজ্জামান জানান- বন্য হতি হত্যার ঘটনায় তিনজনকে আসামী করে বন বিভাগের পানেরছড় রেঞ্জ কর্মকর্তা বাদি হয়ে একটি থানায় মামলা দায়ের করেন। পুলিশ জড়িতদের দ্রুত আটকের চেষ্টা চালাচ্ছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By Bangla Webs
error: Content is protected !!