বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ০৭:৩১ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
রামুতে সূর্যের হাসি যুব সংঘ ও প্রবাসী ফোরামের উদ্যোগে এসএসসিতে জিপিএ-৫ প্রাপ্তদের সংবর্ধনা মুক্তি” কক্সবাজার কর্তৃক টেকনাফে আন্তর্জাতিক ও জাতীয় প্রতিবন্ধী দিবস পালিত টেকনাফের নয়াবাজারে ছুরিকাঘাতে শাহ আলম গুরুতর আহত! শারীরিক নির্যাতন ও মিথ্যা মামলায় হয়রানির প্রতিবাদে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন ভাটারা থানা ছাত্রলীগের সভাপতি পলাশ, সাধারণ সম্পাদক উল্লাস নাফ মেরিট মাল্টিমিডিয়া স্কুলে ক্লাস পার্টি রোহিঙ্গা সেলিম হত্যা মামলায় হ্নীলার বাবুল মেম্বার গ্রেপ্তার টেকনাফে‘নগদকর্মী’কে হত্যার অভিযোগে ৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা টেকনাফে এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার টেকনাফ হ্নীলার মহিলা মাদ্রাসার বিরুদ্ধে মিথ্যা অপপ্রচারের প্রতিবাদ

রেলওয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অনিয়মের অভিযোগে সাংবাদিক সম্মেলন |বাংলাদেশ দিগন্ত

সবুজ মোল্লা, পাবনা জেলার বিশেষ প্রতিনিধি:
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১২ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৫৯০ বার পঠিত

বিশেষ সুবিধা নিয়ে অবৈধভাবে রেলওয়ের ঈশ্বরদীর কানুনগো অফিসের অধিনস্ত করিমপুর জলাশয় প্রায় দশ হাজার টাকা কম মূল্যে টেন্ডার দেওয়ার প্রতিবাদ,দোষীদের শাস্তি ও বৃত্তহীন সমিতির নামে পুণরায় লিজ প্রদানের দাবিতে সাংবাদিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার দুপুরে বৃত্তহীন সমিতির পক্ষ থেকে ঈশ্বরদী উপজেলা প্রেসক্লাবে আয়োজিত সাংবাদিক সম্মেলনে বক্তব্য দেন, বৃত্তহীন সমিতির সভাপতি সুলতান সরদার ও সাধারণ সম্পাদক জামাল উদ্দিন। তারা লিখিত বক্তব্যে অভিযোগ করে বলেন, ১৯৮৩ সাল থেকে অত্র সমিতির নামে বাৎসরিক ২৪ হাজার টাকা হারে খাজনা দিয়ে ১০ একর ৮০ শতাংশ জলাশয় ভোগ করে আসছিলাম। জলাশয় সংলগ্ন সমিতির সদস্যরা স্থায়ী বাসিন্দাদের তিন একর পৈতৃক সম্পত্তি ভেঙ্গে একই জলাশয়ে রুপান্তরিত হয়েছে। এতে সমিতির সদস্যরা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। এ অবস্থায় রেলওয়ের অসাধু কর্মকর্তারা মোটা অংকের টাকা ঘুষ নিয়ে কোন নোটিশ না দিয়ে কথিত টেন্ডারের মাধ্যমে একর প্রতি ১০ হাজার টাকা কম দরে অন্যত্রে লিজ দেওয়ার পাঁয়তারা করছেন। যা ২০০৬ সালের ২৩ মার্চ তারিখে বাংলাদেশ সরকারের প্রকাশিত গেজেটের সম্পূর্ণ পরিপন্থী।
সাংবাদিক সম্মেলনে বক্তারা কর্মকর্তাদের অপচেষ্টার তদন্ত পূর্বক দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবি করে আরও বলেন, রেলওয়ের সংশ্লিষ্ট বিভাগের অসাধু কর্মচারী-কর্মকর্তারা মোটা অংকের টাকা ঘুষ নিয়ে আমাদের কোন নোটিশ বা মৌখিকভাবে না জানিয়ে অবৈধভাবে কথিত টেন্ডারের মাধ্যমে একর প্রতি ২৪হাজার ৫০০ টাকার স্থলে ১৪ হাজার ৫০০ টাকা দরে গোপনে টেন্ডার দাখিল করিয়ে কম দরে অন্যত্রে লিজ দেওয়ার পাঁয়তারা করছেন। যা ২০০৬ সালের প্রকাশিত বাংলাদেশ সরকারের গেজেটের সমপূর্ণ পরিপন্থী। তারা বলেন,কতিপয় কর্মকর্তা-কর্মচারিরা রেলওয়েতে চাকরী করে বেতন নিয়মিত বেতন গ্রহণ করলেও সরকারের স্বার্থবিরোধী কাজ করছেন। তারা নিয়মমাফিক বৃত্তহীন সমিতির নামে খাজনা গ্রহন পূর্বক পুণরায় লিজ নবায়নের ব্যবস্থা গ্রহণে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করছেন। একই সাথে সরকারের দায়িত্বশীল পদে থেকে যেসব কর্মচারি-কর্মকর্তারা রেলওয়ের আর্থিক ক্ষতি করে নিজেরা লাভবান হচ্ছেন তাদের সকল প্রকার কাজের এবং অশুভ অপচেষ্টার তদন্ত পূর্বক দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবি করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By Bangla Webs
error: Content is protected !!