শুক্রবার (১৮ সেপ্টেম্বর) সকালে সাতকানিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

নিহত রিনি ও তার স্বামী ওই উপজেলার ঢেমশা ইউনিয়নের বাসিন্দা।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে ওসি আনোয়ার হোসেন জানান, ৯ বছর আগে সাতকানিয়ার গোয়াজার পাড়া এলাকার বাসিন্দা রিনির সঙ্গে ঢেমশা ইউনিয়নের আবদুর রহিমের ভালোবাসার সম্পর্ক থেকেই বিয়ে হয়। বিয়ের পর কয়েক বছর ভালো চললেও গত কয়েক বছর ধরে মাঝে মধ্যেই তাদের মধ্যে কলহ লেগে থাকতো।

রিনি ইয়াবা আসক্ত এবং পরকীয়া সম্পর্কে জড়িত বলে অভিযোগ করে বিভিন্ন সময় মারধর করতেন আবদুর রহিম। বৃহস্পতিবার রাতে একই অভিযোগ তুলে রিনিকে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে খুন করেন আবদুর রহিম। পরে ৯৯৯ ফোন করে পুলিশকে খবর দেন।

পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছলে স্ত্রীকে নিজ হাতে খুন করার কথা জানান আবদুর রহিম। পরে তাকে গ্রেপ্তার করে থানা হাজতে নিয়ে যাওয়া হয়। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিক‌্যাল কলেজ মর্গে পাঠানো হয়েছে।

ওসি আরও জানান, আবদুর রহিমের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। তাকে আজ আদালতে সোপর্দ করা হবে।