ঢাকা ০৫:৪৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নবীনগরে বৃষ্টিতে শংকায় জীবন কাটছে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘরে।

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৫:৩৫:৫৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১০ অক্টোবর ২০২৩ ১০৬ বার পড়া হয়েছে

নবীনগরে বৃষ্টিতে শংকায় জীবন কাটছে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘরে।
মোঃ হেলাল উদ্দিন ( ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধিঃ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া নবীনগর উপজেলা প্রধানমন্ত্রীর দেয়া আশ্রয়ন প্রকল্পের ঘরে বৃষ্টিতে শংকায় জীবন কাটছে হতদরিদ্র পরিবারগুলোর।

জানা যায়,উপজেলার জিনদপুর ইউনিয়নের হুরুয়া (নয়াপাড়া) গ্রামে ২৮ আগষ্ট প্রধানমন্ত্রীর উপহারের আশ্রয়ন প্রকল্প-২ এর আওতায় ৫০টি গৃহহীন পরিবারের মাঝে আনুষ্ঠানিক ভাবে ঘর হস্তান্তর করে নবীনগর উপজেলা প্রশাসন। এসকল ঘরের নির্মাণ কাজ তদারকি করার জন্য তৎকালীন উপজেলা নির্বাহী অফিসার একরামুল ছিদ্দিক দায়িত্ব দেয় স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান রবিউল আওয়াল রবিকে।কিন্তু ঘর হস্তান্তরের মাস না পেরোতেই দেয়ালে ফাঁটল,টিনের ফাঁক দিয়ে বৃষ্টির পানি ঘরের ভেতরে প্রবেশ করা,জানালা ভেঙে পড়া,নিম্নমানের কাঠে গুনে ধরা, সিমেন্ট কম দেয়ায় দেয়াল থেকে অনবরত বালু ঝরে পড়া,দেয়ালের কিছু কিছু অংশ ভেঙে পড়ে দূর্ঘটনা ঘটা,টিউবওয়েল না থাকায় বিশুদ্ধ পানির অভাব,বিদ্যুৎ সংযোগের নামে ৫ হাজার করে জনপ্রতি নেয়ার সহ টাকা না দিতে পারায় বিদ্যুৎ সংযোগ না দেয়ার অভিযোগ তুলেছে ৩৫ নাম্বার ঘরের বাসিন্দা আব্দুর রহিম,২৭ নাম্বার ঘরের কলি বেগম,১৬ নাম্বার ঘরের সাজু বেগম,২২ নাম্বার ঘরের আফিয়া খাতুন,১ নাম্বার ঘরের মরিয়ম,৩৬ নাম্বার ঘরের শাহনাজ বেগম,৯ নাম্বার ঘরের গাবুদ্দি মিয়া,১১ নাম্বার ঘরের মোহন মিয়া,১৮ নাম্বার ঘরের হালিমা বেগম।
এসময় তারা জানান,প্রধানমন্ত্রী শেখা হাসিনা ঘর দিয়ে আমাদের মাথা গুজার ঠাঁই দিয়েছে কিন্তু এসব ঘরের কাজ এতই নিম্নমানের হয়েছে সিমেন্ট দিয়েছে বলে মনে হয় না।দেয়ালে বড় বড় ফাঁটল ধরেছে।তাছাড়া আশরাফুল নামের ৮ বছরের এক শিশুর উপর দেয়াল থেকে আস্তর খসে পড়ে আহত হওয়ার ঘটনাও ঘটেছে। বৃষ্টি আসলে ঘুমানো যায় না চারদিক দিয়ে ঘরে পানি ঢুকে,বালতি নিয়ে দাঁড়িয়ে থাকত হয়।

এবিষয়ে নবীনগর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা প্রকৌশলী মোহাম্মদ মিজানুর রহমান জানান, বিষয়টি দেখে সকল সমস্যা সমাধানের জন্য দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

Facebook Comments Box

নবীনগরে বৃষ্টিতে শংকায় জীবন কাটছে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘরে।

আপডেট সময় : ০৫:৩৫:৫৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১০ অক্টোবর ২০২৩

নবীনগরে বৃষ্টিতে শংকায় জীবন কাটছে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘরে।
মোঃ হেলাল উদ্দিন ( ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধিঃ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া নবীনগর উপজেলা প্রধানমন্ত্রীর দেয়া আশ্রয়ন প্রকল্পের ঘরে বৃষ্টিতে শংকায় জীবন কাটছে হতদরিদ্র পরিবারগুলোর।

জানা যায়,উপজেলার জিনদপুর ইউনিয়নের হুরুয়া (নয়াপাড়া) গ্রামে ২৮ আগষ্ট প্রধানমন্ত্রীর উপহারের আশ্রয়ন প্রকল্প-২ এর আওতায় ৫০টি গৃহহীন পরিবারের মাঝে আনুষ্ঠানিক ভাবে ঘর হস্তান্তর করে নবীনগর উপজেলা প্রশাসন। এসকল ঘরের নির্মাণ কাজ তদারকি করার জন্য তৎকালীন উপজেলা নির্বাহী অফিসার একরামুল ছিদ্দিক দায়িত্ব দেয় স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান রবিউল আওয়াল রবিকে।কিন্তু ঘর হস্তান্তরের মাস না পেরোতেই দেয়ালে ফাঁটল,টিনের ফাঁক দিয়ে বৃষ্টির পানি ঘরের ভেতরে প্রবেশ করা,জানালা ভেঙে পড়া,নিম্নমানের কাঠে গুনে ধরা, সিমেন্ট কম দেয়ায় দেয়াল থেকে অনবরত বালু ঝরে পড়া,দেয়ালের কিছু কিছু অংশ ভেঙে পড়ে দূর্ঘটনা ঘটা,টিউবওয়েল না থাকায় বিশুদ্ধ পানির অভাব,বিদ্যুৎ সংযোগের নামে ৫ হাজার করে জনপ্রতি নেয়ার সহ টাকা না দিতে পারায় বিদ্যুৎ সংযোগ না দেয়ার অভিযোগ তুলেছে ৩৫ নাম্বার ঘরের বাসিন্দা আব্দুর রহিম,২৭ নাম্বার ঘরের কলি বেগম,১৬ নাম্বার ঘরের সাজু বেগম,২২ নাম্বার ঘরের আফিয়া খাতুন,১ নাম্বার ঘরের মরিয়ম,৩৬ নাম্বার ঘরের শাহনাজ বেগম,৯ নাম্বার ঘরের গাবুদ্দি মিয়া,১১ নাম্বার ঘরের মোহন মিয়া,১৮ নাম্বার ঘরের হালিমা বেগম।
এসময় তারা জানান,প্রধানমন্ত্রী শেখা হাসিনা ঘর দিয়ে আমাদের মাথা গুজার ঠাঁই দিয়েছে কিন্তু এসব ঘরের কাজ এতই নিম্নমানের হয়েছে সিমেন্ট দিয়েছে বলে মনে হয় না।দেয়ালে বড় বড় ফাঁটল ধরেছে।তাছাড়া আশরাফুল নামের ৮ বছরের এক শিশুর উপর দেয়াল থেকে আস্তর খসে পড়ে আহত হওয়ার ঘটনাও ঘটেছে। বৃষ্টি আসলে ঘুমানো যায় না চারদিক দিয়ে ঘরে পানি ঢুকে,বালতি নিয়ে দাঁড়িয়ে থাকত হয়।

এবিষয়ে নবীনগর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা প্রকৌশলী মোহাম্মদ মিজানুর রহমান জানান, বিষয়টি দেখে সকল সমস্যা সমাধানের জন্য দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

Facebook Comments Box