ঢাকা ০৪:২৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পৌর মেয়রের ৪র্থ বর্ষ পূর্তিতে সাংবাদিকদের সাথে মত বিনিময়

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১১:২৭:৩১ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৪ নভেম্বর ২০২৩ ৭২ বার পড়া হয়েছে

পৌর মেয়রের ৪র্থ বর্ষ পূর্তিতে সাংবাদিকদের সাথে মত বিনিময়
হেলাল উদ্দিন ব্রাহ্মণবাড়িয়া নবীনগর প্রতিনিধি।
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর পৌরসভার মেয়র এডভোকেট শিবশংকর দাসের ৪ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে মেয়রের কার্যালয়ে স্থানিয় সাংবাদিকদের সাথে মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সাবেক প্রেসক্লাবের সভাপতি মাহাবুব আলম লিটন, সাংবাদিক গৌরাঙ্গ দেব নাথ অপু, নবীনগর প্রেসক্লাবের সভাপতি শ্যামাপ্রসাদ চক্রবর্তী শ্যামল, প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি আরিফুল ইসলাম ভুঁইয়া মিনাজ, সিনিয়র সহ-সভাপতি তাজুল ইসলাম, কান্তি কুমার ভট্টাচার্য, মিঠু সূত্রধর পলাশ, সাংবাদিক হেলাল উদ্দিন। উপজেলা প্রেসক্লাবের সদস্য খান জাহান আলী চৌধুরী, সদস্য আবু সুফি, মডেল প্রেসক্লাবের সভাপতি মোঃ আবু কাউছার, সাধারণ সম্পাদক মাজেদুল ইসলাম, সদস্য আলমগীর হোসেন, ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি মোঃ রেজাউল হক রহমত, সাধারণ সম্পাদক মোঃ সায়েদুর রহমান রাসেল, সাংবাদিক ঐক্য পরিষদের সভাপতি সঞ্জয় শীল,শাফিউল আলমসহ অন্যান্যরা।

সাংবাদিকদের পাশাপাশি স্থানিয় উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক শফিকুল ইসলাম, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি পদ প্রার্থী হাজী খাইরুল আমিন, উপজেলা যুব লীগের সভাপতি শামস আলম, সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম রিপন, পৌরসভার কাউন্সিলর গনি চাঁন মকসুদ, কাউন্সিলর হাজী মোঃ নুরুজ্জামান, কাউন্সিলর মোঃ আবু তাহের, কাউন্সিল নিলুফার ইয়াসমিন, পৌর নির্বাহী কর্মকর্তা আরিফ বাতেন, পৌর হিসাব রক্ষক মোঃ জামাল উদ্দিনসহ পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারিরা উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় মেয়র এডভোকেট শিবশংকর দাস সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেয়াসহ ৪ বছরের উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড ও পৌর সভার আয়-ব্যয় ও সুবিধা-অসুবিধা নিয়ে আলোচনা করেন।

পৌর মেয়র এডভোকেট শিবশংকর দাস জানান, নির্বাচিত হওয়ার কয়েক মাসের মধ্যে বিশ্বব্যাপী করোনা পরিস্থিতির কারনে টানা ২ বছরের উপর সারাদেশের ন্যায় নবীনগরেও পৌর কার্যক্রমে ব্যাঘাত ঘটেছিল। আমি করোনা পরিস্থিতির ২ বছর পর বর্তমানে শেষ হওয়া ২ বছরে পৌর সভার আলোক সজ্জার জন্য সড়ক বাতি স্থাপন, ডাম্পিং স্টেশন উদ্বোধন ও কার্যক্রম শুরু করা, বাসা বাড়ি থেকে শুরু করে রাস্তাঘাটে পড়ে থাকা ময়লা-আবর্জনার স্তুপ দ্রুত অপসারণ করা, হাইড্রোলিক হর্ণ অপসারণ, যানজট নিরসনে ট্রাফিক পুলিশের ব্যবস্থা করা, ড্রেনেজ ব্যবস্থার উন্নয়ন, ব্রীজ-কার্লভার্ট নির্মাণ, রাস্তা সংস্কার ও নির্মান করা, স্থানিয় মসজিদ, মন্দির, ঈদগাঁ, কবরস্থান, শ্মাশান সংস্কার ও পরিছন্নতাসহ পৌর নাগরিক সুবিধা দেয়ার চেষ্টা করেছি। সকলের সহযোগিতা পেলে আরো উন্নত পৌরসভা উপহার দিতে পারবো বলে আশা করছি।

Facebook Comments Box

পৌর মেয়রের ৪র্থ বর্ষ পূর্তিতে সাংবাদিকদের সাথে মত বিনিময়

আপডেট সময় : ১১:২৭:৩১ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৪ নভেম্বর ২০২৩

পৌর মেয়রের ৪র্থ বর্ষ পূর্তিতে সাংবাদিকদের সাথে মত বিনিময়
হেলাল উদ্দিন ব্রাহ্মণবাড়িয়া নবীনগর প্রতিনিধি।
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর পৌরসভার মেয়র এডভোকেট শিবশংকর দাসের ৪ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে মেয়রের কার্যালয়ে স্থানিয় সাংবাদিকদের সাথে মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সাবেক প্রেসক্লাবের সভাপতি মাহাবুব আলম লিটন, সাংবাদিক গৌরাঙ্গ দেব নাথ অপু, নবীনগর প্রেসক্লাবের সভাপতি শ্যামাপ্রসাদ চক্রবর্তী শ্যামল, প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি আরিফুল ইসলাম ভুঁইয়া মিনাজ, সিনিয়র সহ-সভাপতি তাজুল ইসলাম, কান্তি কুমার ভট্টাচার্য, মিঠু সূত্রধর পলাশ, সাংবাদিক হেলাল উদ্দিন। উপজেলা প্রেসক্লাবের সদস্য খান জাহান আলী চৌধুরী, সদস্য আবু সুফি, মডেল প্রেসক্লাবের সভাপতি মোঃ আবু কাউছার, সাধারণ সম্পাদক মাজেদুল ইসলাম, সদস্য আলমগীর হোসেন, ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি মোঃ রেজাউল হক রহমত, সাধারণ সম্পাদক মোঃ সায়েদুর রহমান রাসেল, সাংবাদিক ঐক্য পরিষদের সভাপতি সঞ্জয় শীল,শাফিউল আলমসহ অন্যান্যরা।

সাংবাদিকদের পাশাপাশি স্থানিয় উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক শফিকুল ইসলাম, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি পদ প্রার্থী হাজী খাইরুল আমিন, উপজেলা যুব লীগের সভাপতি শামস আলম, সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম রিপন, পৌরসভার কাউন্সিলর গনি চাঁন মকসুদ, কাউন্সিলর হাজী মোঃ নুরুজ্জামান, কাউন্সিলর মোঃ আবু তাহের, কাউন্সিল নিলুফার ইয়াসমিন, পৌর নির্বাহী কর্মকর্তা আরিফ বাতেন, পৌর হিসাব রক্ষক মোঃ জামাল উদ্দিনসহ পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারিরা উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় মেয়র এডভোকেট শিবশংকর দাস সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেয়াসহ ৪ বছরের উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড ও পৌর সভার আয়-ব্যয় ও সুবিধা-অসুবিধা নিয়ে আলোচনা করেন।

পৌর মেয়র এডভোকেট শিবশংকর দাস জানান, নির্বাচিত হওয়ার কয়েক মাসের মধ্যে বিশ্বব্যাপী করোনা পরিস্থিতির কারনে টানা ২ বছরের উপর সারাদেশের ন্যায় নবীনগরেও পৌর কার্যক্রমে ব্যাঘাত ঘটেছিল। আমি করোনা পরিস্থিতির ২ বছর পর বর্তমানে শেষ হওয়া ২ বছরে পৌর সভার আলোক সজ্জার জন্য সড়ক বাতি স্থাপন, ডাম্পিং স্টেশন উদ্বোধন ও কার্যক্রম শুরু করা, বাসা বাড়ি থেকে শুরু করে রাস্তাঘাটে পড়ে থাকা ময়লা-আবর্জনার স্তুপ দ্রুত অপসারণ করা, হাইড্রোলিক হর্ণ অপসারণ, যানজট নিরসনে ট্রাফিক পুলিশের ব্যবস্থা করা, ড্রেনেজ ব্যবস্থার উন্নয়ন, ব্রীজ-কার্লভার্ট নির্মাণ, রাস্তা সংস্কার ও নির্মান করা, স্থানিয় মসজিদ, মন্দির, ঈদগাঁ, কবরস্থান, শ্মাশান সংস্কার ও পরিছন্নতাসহ পৌর নাগরিক সুবিধা দেয়ার চেষ্টা করেছি। সকলের সহযোগিতা পেলে আরো উন্নত পৌরসভা উপহার দিতে পারবো বলে আশা করছি।

Facebook Comments Box