ঢাকা ০১:২৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া নবীনগর শীর্ষ নেতা নামে পরিচয় লাভ করেছেন ফয়জুর রহমান বাদল। বাদল একটি ব্র্যান্ড নেইম….

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৫:১০:৩১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২২ ডিসেম্বর ২০২৩ ৪৬ বার পড়া হয়েছে

হেলাল উদ্দিন ব্রাহ্মণবাড়িয়া নবীনগর প্রতিনিধি।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া নবীনগর শ্রীরামপুর ইউনিয়ন গোপালপুর গ্রামে বীর মুক্তিযোদ্ধা সার্জেন মজিবুর রহমানের সুযোগ্য সন্তান ফয়জুর রহমান বাদল । তিনি নবীনগর রাজনৈতিক মাঠে অবস্থান করে ২০০৮ সালে । বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টে রমজান মাসে ইফতার পার্টিতে আমি যখন ছাত্রলীগ করি তখন নবীনগর সরকারি কলেজ ছাত্রলীগ শাখার পক্ষ থেকে গিয়েছিলাম । নবীনগরের কিছু জনগণের মাধ্যমে ঐদিন ফয়জুর রহমান বাদল পরিচয় দেন আমি বীর মুক্তিযোদ্ধা সার্জেন মজিবুর রহমানের ছেলে আমার নাম বাদল পরবর্তীতে নবীনগর রাজনীতির মাঠে প্রবেশ করে তারপর থেকে রাজনৈতিক সাথে সম্পৃক্ত হয়ে পড়ে। বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টে একটি কথাই বলেছিলেন পাঁচ মিনিট বক্তব্যের মাধ্যমে যে আমি নবীনগর রাজনৈতিক মাঠে যাব একমাত্র মানুষের কল্যাণের কাজ করে যাব । সেই কথাগুলো এখনো আমার কাছে অমর হয়ে আছে । সত্যিই তিনি কথা যা বলে কাজ তাই করে । এটার প্রমাণ নবীনগর বাসির কাছেই । দীর্ঘদিন রাজনৈতনীতি করতে করতে ২০১৪ সালে মনোনয়ন পাই এবং আমি এমপি হই । তিনি ১৪ থেকে শুরু করে ১৮ সালে সর্বোচ্চ জনপ্রিয় লোক হয়ে আসছে। তার ধারাবাহিক কথা নবীনগর জনগণের কথা চিন্তা করে নবীনগর জনগণের আশা আকাঙ্ক্ষা পূরণ করার লক্ষ্যে আবারো পাঁচ বছর অপেক্ষার কান্ডারী হয়ে নবীনগর মানুষের ভালোবাসার রক্ষা করার জন্য বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কাছেই মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছেই নবীনগর জনগণের কাছেই একদিন বক্তৃতায় বলেছিলেন আমার মনোনয়ন পাওয়ার জন্য আপনাদের আশা আকাঙ্ক্ষা পূরণ করার জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমি ভিক্ষা চাইবো । কারণ আপনাদের ভালোবাসা কারণেই আমি আবার মনোনয়ন এনে আপনাদের ভালবাসার মাঝে থাকতে চাই , সেই সুবাদে আমি মনোনয়ন পেয়েছি আপনারা অত্যন্ত খুশি আমিও আপনাদের খুশির কারণে আনন্দিত । আমি নবীনগর মাদকমুক্ত নবীনগর চাই , কোন ধান্দাবাজ , চোর ডাকাত , ইয়াবা খোর গাজা খোর ,এইসব লোককে আমি প্রশ্রয় দিব না , আমি চাই নবীনগর কে একটি স্মার্ট নবীনগর করতে চাই , কিন্তু আপনাদের সহযোগিতা আমার কাম্য , আপনাদের সহযোগিতা পেলে নবীনগর কে একটি গ্রামগঞ্জে শহর হিসেবে পরিণত করতে পারব । আমি চাই আপনারা আমার পাশে থেকে নবীনগর কে একটি মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে আমরা দিনরাত কাজ করে যাব সুন্দর একটি নবীনগর উপহার দিব আপনাদের কাছে । আমি চাই আমাকে যদি ৭ জানুয়ারি সর্বোচ্চ ভোটের মাধ্যমে নির্বাচিত করেন তাহলে আমি সর্বোচ্চ খুশি হব । নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলছি আপনারা যার যার অবস্থান থেকে ভোটারের কাছে গিয়ে ভোটারকে উৎসাহ উদ্দীপনার মাধ্যমে ভোট কালেক্ট করেন । আমি চাই নেতাকর্মীরা মহিলা কর্মীরা ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে কাজ করে সঠিক নেতা হিসেবে আমার কাছে গণ্য হোক । যদি আমাকে ভোটের মাধ্যমে নির্বাচিত করেন আমি সর্বোচ্চ আপনাদেরকে আমার সাধ্যমত আমি সম্মানিত করবো । নবীনগর উপজেলা কে উন্নয়নের মডেল হিসেবে রূপান্তরিত করব। আশা করি আপনারা ৭ জানুয়ারি স্বতঃস্ফূর্তভাবে ভোটকেন্দ্রে গিয়ে আমাকে জয়যুক্ত করবেন ।

Facebook Comments Box

ব্রাহ্মণবাড়িয়া নবীনগর শীর্ষ নেতা নামে পরিচয় লাভ করেছেন ফয়জুর রহমান বাদল। বাদল একটি ব্র্যান্ড নেইম….

আপডেট সময় : ০৫:১০:৩১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২২ ডিসেম্বর ২০২৩

হেলাল উদ্দিন ব্রাহ্মণবাড়িয়া নবীনগর প্রতিনিধি।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া নবীনগর শ্রীরামপুর ইউনিয়ন গোপালপুর গ্রামে বীর মুক্তিযোদ্ধা সার্জেন মজিবুর রহমানের সুযোগ্য সন্তান ফয়জুর রহমান বাদল । তিনি নবীনগর রাজনৈতিক মাঠে অবস্থান করে ২০০৮ সালে । বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টে রমজান মাসে ইফতার পার্টিতে আমি যখন ছাত্রলীগ করি তখন নবীনগর সরকারি কলেজ ছাত্রলীগ শাখার পক্ষ থেকে গিয়েছিলাম । নবীনগরের কিছু জনগণের মাধ্যমে ঐদিন ফয়জুর রহমান বাদল পরিচয় দেন আমি বীর মুক্তিযোদ্ধা সার্জেন মজিবুর রহমানের ছেলে আমার নাম বাদল পরবর্তীতে নবীনগর রাজনীতির মাঠে প্রবেশ করে তারপর থেকে রাজনৈতিক সাথে সম্পৃক্ত হয়ে পড়ে। বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টে একটি কথাই বলেছিলেন পাঁচ মিনিট বক্তব্যের মাধ্যমে যে আমি নবীনগর রাজনৈতিক মাঠে যাব একমাত্র মানুষের কল্যাণের কাজ করে যাব । সেই কথাগুলো এখনো আমার কাছে অমর হয়ে আছে । সত্যিই তিনি কথা যা বলে কাজ তাই করে । এটার প্রমাণ নবীনগর বাসির কাছেই । দীর্ঘদিন রাজনৈতনীতি করতে করতে ২০১৪ সালে মনোনয়ন পাই এবং আমি এমপি হই । তিনি ১৪ থেকে শুরু করে ১৮ সালে সর্বোচ্চ জনপ্রিয় লোক হয়ে আসছে। তার ধারাবাহিক কথা নবীনগর জনগণের কথা চিন্তা করে নবীনগর জনগণের আশা আকাঙ্ক্ষা পূরণ করার লক্ষ্যে আবারো পাঁচ বছর অপেক্ষার কান্ডারী হয়ে নবীনগর মানুষের ভালোবাসার রক্ষা করার জন্য বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কাছেই মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছেই নবীনগর জনগণের কাছেই একদিন বক্তৃতায় বলেছিলেন আমার মনোনয়ন পাওয়ার জন্য আপনাদের আশা আকাঙ্ক্ষা পূরণ করার জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমি ভিক্ষা চাইবো । কারণ আপনাদের ভালোবাসা কারণেই আমি আবার মনোনয়ন এনে আপনাদের ভালবাসার মাঝে থাকতে চাই , সেই সুবাদে আমি মনোনয়ন পেয়েছি আপনারা অত্যন্ত খুশি আমিও আপনাদের খুশির কারণে আনন্দিত । আমি নবীনগর মাদকমুক্ত নবীনগর চাই , কোন ধান্দাবাজ , চোর ডাকাত , ইয়াবা খোর গাজা খোর ,এইসব লোককে আমি প্রশ্রয় দিব না , আমি চাই নবীনগর কে একটি স্মার্ট নবীনগর করতে চাই , কিন্তু আপনাদের সহযোগিতা আমার কাম্য , আপনাদের সহযোগিতা পেলে নবীনগর কে একটি গ্রামগঞ্জে শহর হিসেবে পরিণত করতে পারব । আমি চাই আপনারা আমার পাশে থেকে নবীনগর কে একটি মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে আমরা দিনরাত কাজ করে যাব সুন্দর একটি নবীনগর উপহার দিব আপনাদের কাছে । আমি চাই আমাকে যদি ৭ জানুয়ারি সর্বোচ্চ ভোটের মাধ্যমে নির্বাচিত করেন তাহলে আমি সর্বোচ্চ খুশি হব । নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলছি আপনারা যার যার অবস্থান থেকে ভোটারের কাছে গিয়ে ভোটারকে উৎসাহ উদ্দীপনার মাধ্যমে ভোট কালেক্ট করেন । আমি চাই নেতাকর্মীরা মহিলা কর্মীরা ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে কাজ করে সঠিক নেতা হিসেবে আমার কাছে গণ্য হোক । যদি আমাকে ভোটের মাধ্যমে নির্বাচিত করেন আমি সর্বোচ্চ আপনাদেরকে আমার সাধ্যমত আমি সম্মানিত করবো । নবীনগর উপজেলা কে উন্নয়নের মডেল হিসেবে রূপান্তরিত করব। আশা করি আপনারা ৭ জানুয়ারি স্বতঃস্ফূর্তভাবে ভোটকেন্দ্রে গিয়ে আমাকে জয়যুক্ত করবেন ।

Facebook Comments Box