ঢাকা ১১:২৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

নবীনগরে ফাঁস দিয়ে বৃদ্ধা মহিলা আত্মহত্যা

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৫:০৮:৫৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৩ মার্চ ২০২৪ ৩৩ বার পড়া হয়েছে

 

মো. হেলাল উদ্দিন নবীনগর(ব্রাহ্মণবাড়িয়া)প্রতিনিধি: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে পায়ের ব্যাথা সহ্য করতে না পেরে জুলেখা বেগম (৬৫) নামে এক বৃদ্ধা গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে।
বুধবার (১৩ মার্চ) বিকেলে নবীনগর পৌর এলাকার পশ্চিমপাড়া গোল মসজিদ সংলগ্ন বাসা বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। সে শিবপুর পূর্বপাড়ার মৃত হায়ের মিয়ার স্ত্রী। তার সংসারে তিনটি ছেলে রয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, অসুস্থ বৃদ্ধাকে তার ছেলেরা দেখাশোনা না করায় গত দের বছর ধরে পৌর এলাকার পশ্চিমপাড়া বোনের মেয়ে মর্জিনার ভাড়া বাড়িতে থাকতেন। চিকিৎসার জন্য বাড়িতে নিয়ে এসে সামর্থ্য অনুযায়ী চিকিৎসা ও সেবাযত্ন করেন মর্জিনা বেগম। অনেক চিকিৎসা করেও কোন কাজ হয়নি পরে ডায়াবেটিস থেকে পায়ের আঙ্গুলে পচন ধরায়, দীর্ঘদিন ধরে অসহ্য ব্যথায় নিয়ে দিনপাত করছিলেন। এতে জীবনের প্রতি অতিষ্ঠ হয়ে সকলের অগোচরে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন। সুমাইয়া নামের মহিলা রুমের ভিতর প্রবেশ করতেই গলায় ফাঁস দিয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখে চিৎকার দিলে পার্শ্ববর্তীরা দৌড়ে এসে পুলিশকে খবর দেয়।

এ বিষয়ে বোনের মেয়ে মর্জিনা সময়ের আলোকে জানান, গত দেড় বছর ধরে আমার বাড়িতে রেখে চিকিৎসা ও সেবাযত্ন করে আসছি। গত সপ্তাহ পূর্বে তার তিন ছেলে ‘বড় ছেলের জীবন, মেজো ছেলে লিটন, ছোট ছেলে সেন্টু কে অবগত করলেও তারা মায়ের কোন খোঁজ খবর নেয়নি। আজ সকালে একটি কাজে কুমিল্লায় গিয়েছিলাম, সেখান থেকে এই খবর পেয়ে বাড়িতে আসি।

এ বিষয়ে নবীনগর থানার ওসি (তদন্ত) সজল কান্তি দাস ঘটনা সত্যতা নিশ্চিত করে সময়ের আলোকে জানান, পৌর এলাকার পশ্চিমপাড়ায় গলায় ফাঁস দিয়ে এক বৃদ্ধা আত্মহত্যা করেছে। খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে প্রাথমিক সুরতহাল শেষে ময়না তদন্তের জন্য জেলা মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

Facebook Comments Box

নবীনগরে ফাঁস দিয়ে বৃদ্ধা মহিলা আত্মহত্যা

আপডেট সময় : ০৫:০৮:৫৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৩ মার্চ ২০২৪

 

মো. হেলাল উদ্দিন নবীনগর(ব্রাহ্মণবাড়িয়া)প্রতিনিধি: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে পায়ের ব্যাথা সহ্য করতে না পেরে জুলেখা বেগম (৬৫) নামে এক বৃদ্ধা গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে।
বুধবার (১৩ মার্চ) বিকেলে নবীনগর পৌর এলাকার পশ্চিমপাড়া গোল মসজিদ সংলগ্ন বাসা বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। সে শিবপুর পূর্বপাড়ার মৃত হায়ের মিয়ার স্ত্রী। তার সংসারে তিনটি ছেলে রয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, অসুস্থ বৃদ্ধাকে তার ছেলেরা দেখাশোনা না করায় গত দের বছর ধরে পৌর এলাকার পশ্চিমপাড়া বোনের মেয়ে মর্জিনার ভাড়া বাড়িতে থাকতেন। চিকিৎসার জন্য বাড়িতে নিয়ে এসে সামর্থ্য অনুযায়ী চিকিৎসা ও সেবাযত্ন করেন মর্জিনা বেগম। অনেক চিকিৎসা করেও কোন কাজ হয়নি পরে ডায়াবেটিস থেকে পায়ের আঙ্গুলে পচন ধরায়, দীর্ঘদিন ধরে অসহ্য ব্যথায় নিয়ে দিনপাত করছিলেন। এতে জীবনের প্রতি অতিষ্ঠ হয়ে সকলের অগোচরে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন। সুমাইয়া নামের মহিলা রুমের ভিতর প্রবেশ করতেই গলায় ফাঁস দিয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখে চিৎকার দিলে পার্শ্ববর্তীরা দৌড়ে এসে পুলিশকে খবর দেয়।

এ বিষয়ে বোনের মেয়ে মর্জিনা সময়ের আলোকে জানান, গত দেড় বছর ধরে আমার বাড়িতে রেখে চিকিৎসা ও সেবাযত্ন করে আসছি। গত সপ্তাহ পূর্বে তার তিন ছেলে ‘বড় ছেলের জীবন, মেজো ছেলে লিটন, ছোট ছেলে সেন্টু কে অবগত করলেও তারা মায়ের কোন খোঁজ খবর নেয়নি। আজ সকালে একটি কাজে কুমিল্লায় গিয়েছিলাম, সেখান থেকে এই খবর পেয়ে বাড়িতে আসি।

এ বিষয়ে নবীনগর থানার ওসি (তদন্ত) সজল কান্তি দাস ঘটনা সত্যতা নিশ্চিত করে সময়ের আলোকে জানান, পৌর এলাকার পশ্চিমপাড়ায় গলায় ফাঁস দিয়ে এক বৃদ্ধা আত্মহত্যা করেছে। খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে প্রাথমিক সুরতহাল শেষে ময়না তদন্তের জন্য জেলা মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

Facebook Comments Box