ঢাকা ১২:১৪ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

স্ত্রী এবং মাকে বোঝান দুজনেই সমান আপনার কাছে:

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১১:৪০:৩২ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৭ মার্চ ২০২৪ ২১ বার পড়া হয়েছে

কলমে: প্রিয়াংকা নিয়োগী,
কোচবিহার,ভারত,
স্ত্রী এবং মা দুজনেই একজন পুরুষের জীবনে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হয়।মা যেমন একরকম ভূমিকা পালন করে,তেমনি স্ত্রী আরেকরকম ভূমিকা পালন করেন।
কিন্তু একজন পুরুষের জীবনে বড়ো সমস্যা তখনই হয় যখন তার মা এবং স্ত্রীর মধ্যে শত্রুতা তৈরী হয়।মা ছেলেকে তার নিজের মতো করে রাখতে চায়,তেমনি স্ত্রীও তার দিকে টানতে থাকে এবং এটা শুরু হয় সাংসারিক কর্তৃত্ব করা নিয়ে।শাশুড়ি যেমন করে সংসার সাজিয়েছেন তিনি চান তার বৌমাও‌ তেমন করেই সব শিখুক এবং সেভাবেই কাজ করুক। কিন্তু সব মেয়েরা সমান হয়না। কিছু মেয়েরা বৌ হওয়ার পর তার মতো করে সব করতে চায় বা স্বামীকে নিয়ে আলাদা থাকতে চায়।আবার বৌমা মন মতো না হলে ছেলেকে বুদ্ধি দেয় বৌকে ঠিক বা শায়েস্তা করার জন্য।এই বিষয়গুলোর সম্মুখীন হতে হয় পুরুষদের।সেক্ষেত্রে কখনো পুরুষরা একটি দিক নেয়। আবার কখনো পুরুষরা ঝামেলা গুলো পোহাতে থাকে।

এইরকম ঝামেলা থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য
পুরুষদের মা এবং স্ত্রী উভয়কেই বোঝানো‌ উচিত
তার জীবনে দুজনেই সমান এবং দুজনেই সম গুরুত্বপূর্ণ।
কারণ একজন তার মা এবং আরেকজন তার সন্তানের মা।তাই কারো জায়গাই কম নয় তার জীবনে। এবং একজন পুরুষের উচিত তার মা এবং স্ত্রীকে তৈরী করা উচিত সাংসারিক শান্তি বজায় রাখার জন্য ও তার সাথে‌
উভয়ের মধ্যে সম্পর্ক ভালো রাখার জন্য।

একজন মানুষের জন্য পারিবারিক শান্তি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।তাই একটি পরিবারে যখন একজন পুরুষ
দেখে তার মা ও স্ত্রীর মধ্যে ভালো সম্পর্ক, তখন তার জন্য বাইরের জগতটা নিয়ন্ত্রণ করা ও সম্মুখীন করা সহজ হয়।

Facebook Comments Box

স্ত্রী এবং মাকে বোঝান দুজনেই সমান আপনার কাছে:

আপডেট সময় : ১১:৪০:৩২ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৭ মার্চ ২০২৪

কলমে: প্রিয়াংকা নিয়োগী,
কোচবিহার,ভারত,
স্ত্রী এবং মা দুজনেই একজন পুরুষের জীবনে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হয়।মা যেমন একরকম ভূমিকা পালন করে,তেমনি স্ত্রী আরেকরকম ভূমিকা পালন করেন।
কিন্তু একজন পুরুষের জীবনে বড়ো সমস্যা তখনই হয় যখন তার মা এবং স্ত্রীর মধ্যে শত্রুতা তৈরী হয়।মা ছেলেকে তার নিজের মতো করে রাখতে চায়,তেমনি স্ত্রীও তার দিকে টানতে থাকে এবং এটা শুরু হয় সাংসারিক কর্তৃত্ব করা নিয়ে।শাশুড়ি যেমন করে সংসার সাজিয়েছেন তিনি চান তার বৌমাও‌ তেমন করেই সব শিখুক এবং সেভাবেই কাজ করুক। কিন্তু সব মেয়েরা সমান হয়না। কিছু মেয়েরা বৌ হওয়ার পর তার মতো করে সব করতে চায় বা স্বামীকে নিয়ে আলাদা থাকতে চায়।আবার বৌমা মন মতো না হলে ছেলেকে বুদ্ধি দেয় বৌকে ঠিক বা শায়েস্তা করার জন্য।এই বিষয়গুলোর সম্মুখীন হতে হয় পুরুষদের।সেক্ষেত্রে কখনো পুরুষরা একটি দিক নেয়। আবার কখনো পুরুষরা ঝামেলা গুলো পোহাতে থাকে।

এইরকম ঝামেলা থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য
পুরুষদের মা এবং স্ত্রী উভয়কেই বোঝানো‌ উচিত
তার জীবনে দুজনেই সমান এবং দুজনেই সম গুরুত্বপূর্ণ।
কারণ একজন তার মা এবং আরেকজন তার সন্তানের মা।তাই কারো জায়গাই কম নয় তার জীবনে। এবং একজন পুরুষের উচিত তার মা এবং স্ত্রীকে তৈরী করা উচিত সাংসারিক শান্তি বজায় রাখার জন্য ও তার সাথে‌
উভয়ের মধ্যে সম্পর্ক ভালো রাখার জন্য।

একজন মানুষের জন্য পারিবারিক শান্তি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।তাই একটি পরিবারে যখন একজন পুরুষ
দেখে তার মা ও স্ত্রীর মধ্যে ভালো সম্পর্ক, তখন তার জন্য বাইরের জগতটা নিয়ন্ত্রণ করা ও সম্মুখীন করা সহজ হয়।

Facebook Comments Box