ঢাকা ১২:৫২ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

নবীনগরে মতিন ভূঁইয়া সিপিএ’র উদ্যোগে ইফতার খাদ্য সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠিত।

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৩:৫৮:২৫ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৩ মার্চ ২০২৪ ৩৩ বার পড়া হয়েছে

 

মোঃ হেলাল উদ্দিন নবীনগর (ব্রাহ্মনবাড়িয়া)

ব্রাহ্মনবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলায় গরিব অসহায় মানুষের আস্থা বিশ্বাসের নাম মতিন ভূঁইয়া সিপিএ। যিনি প্রতিনিয়ত নবীনগরের অতিদরিদ্র মানুষের কল্যানে নিবেদিত ভাবে প্রায় দেড় যুগেরও অধিক সময় ধরে কাজ করে যাচ্ছেন। প্রতি বছরই এই মানুষটি পুরো উপজেলার জুড়ে অসহায় কর্মহীন দরিদ্র মানুষের মধ্যে পবিত্র মাহে রমজানের সময় খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করে থাকেন। এ ছাড়াও নিজ জন্মভূমি নবীনগরে মানুষের জন্য একের পর এক সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়ে অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করে চলেছেন এই মানবতার ফেরিওয়ালা খ্যাত মতিন ভূঁইয়া সিপিএ। বিধবা ও প্রতিবন্ধীদের জন্য ভাতা দেয়া, গরিব অসহায় মানুষের বিশুদ্ধ পানির সেব্য নিশ্চিত করতে গভীর নলকূপ স্থাপন করে দেয়া, দরিদ্র মানুষকে স্বাবলম্বী করে তুলতে তাদেরকে গবাদিপশু দেয়া, দক্ষ জনশক্তি গড়ে তুলতে নিজের প্রয়াত বাবার নামে আব্দুল হাই ভূঁইয়া পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠা করেন। ইতোমধ্যে তিনি পুরো উপজেলা জুড়ে হাজার হাজার গরু উপহার দিয়ে এলাকার বহু মানুষকে স্বাবলম্বী হতে সহায়তা করেছেন। হাজার হাজার পরিবারের মাঝে গভীর নলকূপ স্থাপন করে দিয়েছেন, নিজের প্রয়াত বাবার নামে প্রতিষ্ঠিত পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের মাধ্যমে শতশত যুবককে কর্মমুখী করে তুলছেন। তবে প্রতি বছর রমজান

উপলক্ষ্যে ব্যাপক পরিমাণে তিনি খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করে থাকেন। গত করোনাকালিন সময়ে দুই দফায় প্রায় দশ হাজার মানুষের মাঝে প্রায় ২০০ শত মেট্রিকটন খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করে গেছেন। এইবার তিনি প্রতিটি পরিবারের নিকট ২৫ কেজি চাল, ৪ কেজি ডাল ও ৪টি করে সাবান বিতরণ ও ২কেজি সয়াবিন তেল বিতরণ করেন। ২১শে মার্চ বৃহস্পতিবার দুপুরে আব্দুল হাই ভুইয়া পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট প্রাঙ্গণে আনুষ্ঠানিকভাবে অত্যন্ত

সুপরিকল্পিতভাবে ভাবে এসব খাদ্য সামগ্রী উপজেলার রছুল্লাবাদ ও ইব্রাহিমপুর ইউনিয়নের কয়েকশ পরিবারের মধ্যে বিতরণের মধ্য দিয়ে উদ্বোধন করা হয়। এ বছর পুরো উপজেলায় ৭৫ মেট্রিকটন চাল, ১৫ মেট্রিকটন মশুর ডাল, ১৫ হাজার পিস কাপড় কাচার ও সুগন্ধি সাবান এবং ৬ মেট্রিকটন সয়াবিন তেল দেওয়া হচ্ছে। বছরের পর বছর ধরে সুদূর আমেরিকায় বসবাস করার কারণে

মতিন ভূইয়ার এ সকল নান্দনিক মহৎ কাজটি নিরলসভাবে সামাল দিয়ে যাচ্ছেন তাহার অত্যন্ত বিশ্বস্ত ও পরিশ্রনী মাঝিকাড়া ইসলামী হাফিজিয়া মাদ্রাসার মুহতামিম হাফেজ মুহাম্মদ সানাউল্লাহ। বরাবরের মতো বৃহস্পতিবার সকাল থেকে সন্ধ্যা অবধি স্বশরীরে হাজির হয়ে এসব খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করার সময় তিনি জানান একজন মানবিক গুন সমৃদ্ধ মানুষের মধ্যে যে সমস্ত গুণাবলী থাকা দরকার মতিন ভুইয়া ভাইয়ের মধ্যে তা রয়েছে। তিনি নবীনগর পুরো উপজেলার সামাজিক অবক্ষয় দূর করে সত্যিকারে একটি সমৃদ্ধ নবীনগর গঠনের লক্ষ্যে কোন রকম রাজনৈতিক আকাংখা ছাড়া আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্য কাজ করে যাচ্ছেন।

বিগত দেড় যুগ ধরে সেটি করা হচ্ছে, ভবিষ্যতেও হবে ইনশাআল্লাহ। সবাই এই মানবতার সেবকের জন্য দোয়া করবেন, তিনি ও তার পরিবারের সদস্যরা যেন ভালো থাকে।

Facebook Comments Box

নবীনগরে মতিন ভূঁইয়া সিপিএ’র উদ্যোগে ইফতার খাদ্য সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠিত।

আপডেট সময় : ০৩:৫৮:২৫ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৩ মার্চ ২০২৪

 

মোঃ হেলাল উদ্দিন নবীনগর (ব্রাহ্মনবাড়িয়া)

ব্রাহ্মনবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলায় গরিব অসহায় মানুষের আস্থা বিশ্বাসের নাম মতিন ভূঁইয়া সিপিএ। যিনি প্রতিনিয়ত নবীনগরের অতিদরিদ্র মানুষের কল্যানে নিবেদিত ভাবে প্রায় দেড় যুগেরও অধিক সময় ধরে কাজ করে যাচ্ছেন। প্রতি বছরই এই মানুষটি পুরো উপজেলার জুড়ে অসহায় কর্মহীন দরিদ্র মানুষের মধ্যে পবিত্র মাহে রমজানের সময় খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করে থাকেন। এ ছাড়াও নিজ জন্মভূমি নবীনগরে মানুষের জন্য একের পর এক সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়ে অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করে চলেছেন এই মানবতার ফেরিওয়ালা খ্যাত মতিন ভূঁইয়া সিপিএ। বিধবা ও প্রতিবন্ধীদের জন্য ভাতা দেয়া, গরিব অসহায় মানুষের বিশুদ্ধ পানির সেব্য নিশ্চিত করতে গভীর নলকূপ স্থাপন করে দেয়া, দরিদ্র মানুষকে স্বাবলম্বী করে তুলতে তাদেরকে গবাদিপশু দেয়া, দক্ষ জনশক্তি গড়ে তুলতে নিজের প্রয়াত বাবার নামে আব্দুল হাই ভূঁইয়া পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠা করেন। ইতোমধ্যে তিনি পুরো উপজেলা জুড়ে হাজার হাজার গরু উপহার দিয়ে এলাকার বহু মানুষকে স্বাবলম্বী হতে সহায়তা করেছেন। হাজার হাজার পরিবারের মাঝে গভীর নলকূপ স্থাপন করে দিয়েছেন, নিজের প্রয়াত বাবার নামে প্রতিষ্ঠিত পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের মাধ্যমে শতশত যুবককে কর্মমুখী করে তুলছেন। তবে প্রতি বছর রমজান

উপলক্ষ্যে ব্যাপক পরিমাণে তিনি খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করে থাকেন। গত করোনাকালিন সময়ে দুই দফায় প্রায় দশ হাজার মানুষের মাঝে প্রায় ২০০ শত মেট্রিকটন খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করে গেছেন। এইবার তিনি প্রতিটি পরিবারের নিকট ২৫ কেজি চাল, ৪ কেজি ডাল ও ৪টি করে সাবান বিতরণ ও ২কেজি সয়াবিন তেল বিতরণ করেন। ২১শে মার্চ বৃহস্পতিবার দুপুরে আব্দুল হাই ভুইয়া পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট প্রাঙ্গণে আনুষ্ঠানিকভাবে অত্যন্ত

সুপরিকল্পিতভাবে ভাবে এসব খাদ্য সামগ্রী উপজেলার রছুল্লাবাদ ও ইব্রাহিমপুর ইউনিয়নের কয়েকশ পরিবারের মধ্যে বিতরণের মধ্য দিয়ে উদ্বোধন করা হয়। এ বছর পুরো উপজেলায় ৭৫ মেট্রিকটন চাল, ১৫ মেট্রিকটন মশুর ডাল, ১৫ হাজার পিস কাপড় কাচার ও সুগন্ধি সাবান এবং ৬ মেট্রিকটন সয়াবিন তেল দেওয়া হচ্ছে। বছরের পর বছর ধরে সুদূর আমেরিকায় বসবাস করার কারণে

মতিন ভূইয়ার এ সকল নান্দনিক মহৎ কাজটি নিরলসভাবে সামাল দিয়ে যাচ্ছেন তাহার অত্যন্ত বিশ্বস্ত ও পরিশ্রনী মাঝিকাড়া ইসলামী হাফিজিয়া মাদ্রাসার মুহতামিম হাফেজ মুহাম্মদ সানাউল্লাহ। বরাবরের মতো বৃহস্পতিবার সকাল থেকে সন্ধ্যা অবধি স্বশরীরে হাজির হয়ে এসব খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করার সময় তিনি জানান একজন মানবিক গুন সমৃদ্ধ মানুষের মধ্যে যে সমস্ত গুণাবলী থাকা দরকার মতিন ভুইয়া ভাইয়ের মধ্যে তা রয়েছে। তিনি নবীনগর পুরো উপজেলার সামাজিক অবক্ষয় দূর করে সত্যিকারে একটি সমৃদ্ধ নবীনগর গঠনের লক্ষ্যে কোন রকম রাজনৈতিক আকাংখা ছাড়া আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্য কাজ করে যাচ্ছেন।

বিগত দেড় যুগ ধরে সেটি করা হচ্ছে, ভবিষ্যতেও হবে ইনশাআল্লাহ। সবাই এই মানবতার সেবকের জন্য দোয়া করবেন, তিনি ও তার পরিবারের সদস্যরা যেন ভালো থাকে।

Facebook Comments Box